রাষ্ট্রসংঘে বাংলাদেশের পাশে ব্রিটেন, মায়ানমারের উপর চাপ বাড়িয়ে ঘোষণা ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের

07:51 PM Sep 23, 2022 |
Advertisement

সুকুমার সরকার, ঢাকা: রাষ্ট্রসংঘে বাংলাদেশের পাশেই থাকবে ব্রিটেন। মায়ানমারের উপর চাপ বাড়িয়ে ঘোষণা করলেন ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত রবার্ট ডিকসন। গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই মায়ানমারে তীব্র লড়াই চলছে সরকারি বাহিনী ও রোহিঙ্গা সন্ত্রাসবাদীদের মধ্যে। সেই লড়াইয়ের গোলা আছড়ে পড়েছে বাংলাদেশের ভূখণ্ডে। ফলে সীমান্তে পরিস্থিতি জটিল হয়ে উঠেছে।

Advertisement

সীমান্ত পরিস্থিতির বিষয়ে আলোচনা করতে মঙ্গলবার বিদেশি প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করেন বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত বিদেশ সচিব (অব) রিয়ার অ্যাডমিরাল মহম্মদ খুরশিদ অলম। এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলা মত বিনিময়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে পরিস্থিতির গুরুত্ব তুলে ধরে সাহায্য চায় ঢাকা। সীমান্ত পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য বাংলাদেশ বিষয়টি রাষ্ট্রসংঘে তুলবে বলেও উল্লেখ করেন খুরশিদ অলম। তখন ব্রিটেনের হাইকমিশনার রবার্ট ডিকসন জানান, বাংলাদেশ বিষয়টি রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে উত্থাপন করতে চাইলে স্থায়ী সদস্য হিসেবে সহযোগিতা করতে আগ্রহী লন্ডন। প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়ে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বলা হয়, নিরাপত্তা পরিষদে বাংলাদেশ যাবে কি না, তা নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে সাধারণ সভার বিতর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণে বাংলাদেশ-মায়ানমার সীমান্ত পরিস্থিতি গুরুত্ব পাবে।

[আরও পড়ুন: পুজোমণ্ডপে নাশকতার আশঙ্কা, পুলিশকর্মীদের সতর্ক থাকার বার্তা ঢাকা পুলিশ কমিশনারের]

উল্লেখ্য, মায়ানমারে (Myanmar) সরকারি বাহিনী ও রোহিঙ্গা জঙ্গি সংগঠন ‘আরাকান সালভেশন আর্মি’র মধ্যে তুমুল লড়াই চলছে। আর সেই সংঘাতের আঁচ পড়ছে বাংলাদেশে। একাধিকবার সীমান্তের ওপার থেকে গোলা এসে পড়েছে এপারে। কিন্তু পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এখনই সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করতে চাইছে না ঢাকা।

Advertising
Advertising

বাংলাদেশের (Bangladesh) ভূখণ্ডে একাধিকবার মর্টারশেল এসে পড়ায় ঢাকায় নিযুক্ত মায়ানমারের রাষ্ট্রদূত অং কিউ মোয়েকে রবিবার ফের তলব করে বিদেশমন্ত্রক। পাহাড়ি বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তে গোলাগুলির ঘটনায় তাঁকে তলব করা হয়। এদিকে মায়ানমার সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রসংঘও। বাংলাদেশে রাষ্ট্রসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক গিয়েন লুইস শনিবার সংবাদমাধ্যমে বলেন, মায়ানমার থেকে মর্টারশেল এসে বাংলাদেশে পড়ায় এক ব্যক্তি নিহত ও কয়েকজন আহত হওয়ার খবরে বাংলাদেশে রাষ্ট্রসংঘের কার্যালয় উদ্বিগ্ন। উত্তেজনা বা হতাহত এড়াতে রাষ্ট্রসংঘ সব পক্ষকে শান্ত থাকার আহবান জানিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘ড্যামেজ কন্ট্রোলে’র চেষ্টা! হাসিনাকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ শাহবাজ শরিফের]

Advertisement
Next