Padma Setu: পদ্মা সেতুতে উঠে TikTok ভিডিও! বাংলাদেশে যুবকের কাণ্ডে কড়া প্রশাসন, নিয়ম ভাঙলে হবে শাস্তি

01:23 PM Jun 27, 2022 |
Advertisement

সুকুমার সরকার, ঢাকা: স্বপ্নপূরণের পরই বিতর্কে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক পদ্মা সেতু (Padma Setu)। ব্রিজটি জনসাধারণের জন্য চালু হওয়ার পরই রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেল। রবিবার পদ্মা সেতুতে উঠে নাটবল্টু খুলে হাতে নিয়ে টিকটক (TikTok) ভিডিও করে গ্রেপ্তার হল এক যুবক। এই খবর পাওয়ামাত্রই কড়া পদক্ষেপ নিল বাংলাদেশ প্রশাসন। ভিডিও দূর অস্ত, সেতুতে উঠে ছবি তুললে বা গাড়ি দাঁড় করিয়ে রেখে গল্প করলে মোটা অঙ্কের জরিমানা দিতে হবে বলে সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

Advertisement

ঘটনার সূত্রপাত রবিবার বিকেলে। জানা গিয়েছে, ঐতিহাসিক সেতুতে উঠেছিল বায়োজিদ তালহা নামে এক যুবক। এমনিতেই এতদিনের স্বপ্নপূরণের পর সেতু নিয়ে বাংলাদেশবাসীর (Bangladesh) উচ্ছ্বাস অনেক বেশি। রবিবার যান চলাচল শুরু হলে প্রচুর মানুষও উঠে পড়েন সেতুতে। তাঁদেরই মধ্যে ছিল তালহাও। তার হাতে ছিল রেঞ্জ। তা দিয়ে সেতুর উপর উঠে নাটবল্টু খুলে ফেলে সে। সেইসঙ্গে টিকটক ভিডিও করতে থাকে। ভিডিও তাকে বলতে শোনা যায়, ”লুজ নাট। হাজার হাজার কোটি টাকা এই আমাদের পদ্মা সেতু, এর নাট এখন আমার হাতে। দেখুন সবাই।” সমবেত জনতাও তালহার সুরে সুর মেলান।

[আরও পড়ুন: কলেজ সার্ভিস কমিশনেও দুর্নীতির অভিযোগ, সিবিআই তদন্তের দাবি চাকরিপ্রার্থীদের

প্রায় ৩৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সে আপলোড করে। জানা গিয়েছে, এরপরই তার খোঁজে নামে পুলিশ প্রশাসন। পরে ঢাকার শান্তিনগর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। যদিও ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করেনি ‘সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল’।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: গুরুং-ঘিসিংদের বয়কট সত্ত্বেও ভোটে সাড়া পাহাড়ে, শান্তিপূর্ণ শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের ভোট]

রবিবার পদ্মা সেতুতে যান চলাচল শুরুর পরই একাধিক নিয়মবিধি লাগু করেছিল সরকার। তালহার ঘটনার পর তা আরও বাড়ল। বিধিনিষেধ না মেনে পদ্মা সেতুতে টিকটক ভিডিও, গাড়ি থামিয়ে হাঁটাচলা কিংবা ছবি তুললে গুনতে হবে জরিমানা। একইসঙ্গে বাইকের গতি কিংবা নিয়ম না মানলে মিলবে কঠোর শাস্তি। শরিয়তপুরের জাজিরা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাবিবা ফারজানা জানিয়েছেন,‘‘আজ শিথিল থাকলেও সোমবার থেকে আমরা কঠোর হব। সেতুতে উঠে ছবি তুললে, আড্ডা দিলে কিংবা গাড়ি দাঁড় করিয়ে রেখে গল্প করলে জরিমানা করা হবে।’’

Advertisement
Next