Advertisement

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক জানাজানি হতেই দাম্পত্য কলহ! মর্মান্তিক পরিণতি দেগঙ্গার ব্যবসায়ীর

06:34 PM Nov 28, 2021 |

অর্ণব দাস, বারাসত: পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়েছেন স্বামী। জানাজানি হতেই চরমে উঠেছিল দাম্পত্যকলহ। যার পরিণতি হল ভয়াবহ। ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করে স্বামীকে খুন করল বধূ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গায় (Deganga)। ইতিমধ্যেই মহিলাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুরু হয়েছে তদন্ত।

Advertisement

জানা গিয়েছে, উত্তর ২৪ পরগনার মধ্যমগ্রামের (Madhyamgram) বাসিন্দা মহম্মদ আলম শেখ। পেশায় ব্যবসায়ী ওই ব্যক্তি। হাঁস, মুরগির ফার্ম ছিল তাঁর। দুই সন্তান রয়েছে আলম শেখের। সূত্রের খবর, বাদুড়িয়া এলাকার এক তরুণীর সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন ওই ব্যবসায়ী। স্বামীর পরকীয়ার কথা জানতে পেরেছিলেন আলম শেখের স্ত্রী মুসকান বিবি। তা নিয়ে অশান্তি চলছিল দম্পতির মধ্যে। পরিবারের সদস্যরা মীমাংসার চেষ্টা করলেও লাভ হয়নি। অশান্তি কমেনি। এরপর স্ত্রী, সন্তানদের নিয়ে দেগঙ্গার চ্যাংদায় বাড়ি ভাড়া করে থাকতে শুরু করে আলম শেখ। তারপর অন্য এক মহিলার সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান ওই ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন: নদিয়ায় পথদুর্ঘটনায় মৃত ১৭, শোকপ্রকাশ মোদি-মমতার, সাহায্যের আশ্বাস রাজ্য সরকারের]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার গভীর রাতে আলম শেখের সঙ্গে অশান্তি বাঁধে তাঁর স্ত্রীর। প্রতিবেশীরাও বিষয়টি টের পেয়েছিলেন। স্থানীয়দের দাবি, এদিন আলম শেখ মুসকান বিবিকে বাঁশের মুগুর নিয়ে স্ত্রীকে আক্রমণ করার চেষ্টা করে। কিছুক্ষণ পর মিটে যায় অশান্তি। ঘুমিয়ে পড়েন ওই ব্যবসায়ী। অভিযোগ, মধ্যরাতে সেই সময় ঘুমন্ত স্বামীর মাথায় আঘাত করে মুগুর দিয়ে। এরপরই বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় মুসকান বিবি।

জানা গিয়েছে, কিছুক্ষণ পর অভিযুক্ত নিজেই এক প্রতিবেশী যুবককে ফোন করে, গোটা ঘটনার কথা জানায়। তার পরামর্শে বাড়ি ফিরে আসে মুসকান। উদ্দেশ্য ছিল আলম শেখকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া। কিন্তু ততক্ষণে খবর পেয়ে দেগঙ্গা থানার পুলিশ পৌঁছে যায় ঘটনাস্থলে। ঘটনাস্থল থেকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে মুসকান বিবিকে। ধৃতের কঠোরতম শাস্তির দাবি জানিয়েছেন মৃতের পরিবারের সদস্যরা।

[আরও পড়ুন: রানিগঞ্জের ফ্লাই অ্যাশ কারখানায় ছাই চাপা পড়ে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু, প্রায় ২০ ঘন্টা পর উদ্ধার দেহ]

Advertisement
Next