সরকারি কাজ হয়নি কেন? উত্তরের বদলে গোলাপ-মিষ্টি নিয়ে ফিরলেন CPM নেতা-কর্মীরা

09:47 PM Nov 29, 2022 |
Advertisement

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ডহারবার: শ্রমিকরা ১০০ দিনের কাজের পাওনা টাকা কেন পাননি, সঠিকভাবে কেন করা হয়নি ইন্দিরা আবাস যোজনার ঘর বণ্টন, এমন একাধিক প্রশ্ন-সহ ও দাবিতে মঙ্গলবার বিরোধী সিপিএম (CPM) জবাব চাইতে গিয়েছিল গ্রাম পঞ্চায়েতে শাসক দলের কাছে। ডেপুটেশন দিতে আসা বিরোধী সিপিএম নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বললেন তৃণমূল (TMC) নেতা তথা পঞ্চায়েত প্রধান। এমনকী নিজহাতে বিরোধী পক্ষের হাতে তুলে দিলেন গোলাপ ফুল ও মিষ্টির প্যাকেট। হাসিমুখে তা গ্রহণও করলেন সিপিএম নেতা-কর্মীরা। মঙ্গলবার বিকেলে রাজনৈতিক যুযুধান দু’পক্ষের সৌজন্য বিনিময়ের সাক্ষী হয়ে রইলেন দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার (South 24 Parganas) ডায়মন্ডহারবার (Diamond Harbor) ১ নম্বর ব্লকের বোলসিদ্ধি-কালিনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দারা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

এদিন সিপিএমের ডেপুটেশন উপলক্ষে বড়িয়ার মাঠে জনসভার আয়োজন করে বাম দল। সভাশেষে একটি প্রতিনিধিদল ডেপুটেশন দিতে যায় পঞ্চায়েত প্রধান মুন্নি বিবির কাছে। ওই প্রতিনিধি দলকে অতিথির মতো করে আপ্যায়ন করেন পঞ্চায়েত প্রধান তথা তৃণমূল নেতা। তিনি সিপিএম প্রতিনিধি দলের সদস্যদের হাতে লাল গোলাপ তুলে দেন। এরপর প্রত্যেককে দেওয়া হয় মিষ্টির প্যাকেট। ডেপুটেশন দিতে আসা সিপিএম কর্মীদের কেউ কেউ প্রথমে গোলাপ ফুল ও মিষ্টির প্যাকেট নিতে ইতস্তত করেন। যদিও পঞ্চায়েত প্রধানের অনুরোধে উপহার গ্রহণ করেন। প্রধান মুন্নি বিবি জানিয়েছেন, রাজনৈতিক বিরোধিতা থাকবে। তাই বলে সৌজন্যের অভাব কেন হবে! বিরোধীদের সমস্ত প্রশ্নের জবাব তিনি কয়েক দিনের মধ্যেই দেবেন। অন্যান্য দাবিগুলিও বিবেচনা করা হবে, জানান তিনি।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: সমকামী বন্ধুদের যৌন লালসায় বাধা দেওয়াই কাল! নদিয়ায় ত্রিশূলবিদ্ধ যুবক]

ডায়মন্ডহারবার ১ নম্বর এরিয়া কমিটির সম্পাদক সিপিএম নেতা দেবাশিস ঘোষ জানান, ১০০ দিনের কাজের টাকার হিসেব, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘরের হিসেব, বিধবা ভাতা, বার্ধক্য ভাতা কাদের দেওয়া হচ্ছে, তার হিসেব চাইতে এদিন ডেপুটেশন দেন প্রধানকে। তাছাড়াও নানা কাজের ক্ষেত্রে ওই পঞ্চায়েতে দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে। সেসব অভিযোগেরও এদিন জবাব চাওয়া হয় প্রধানের কাছে। তাঁদের কোনও প্রশ্নের উত্তর পঞ্চায়েত প্রধান দিতে পারেননি। তবে সিপিএম নেতা জানান, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাঁদের সমস্ত প্রশ্নের উত্তর শাসক দলের প্রধান দেবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: এবার আন্তর্জাতিক প্রশংসা পেল দুয়ারে সরকার! রাজ্যের পরিষেবায় মুগ্ধ ইউনিসেফের প্রতিনিধি]

১৫ দিন পর তাঁদের তোলা প্রশ্নের উত্তর প্রধান না দিলে পঞ্চায়েত ঘেরাও আন্দোলন শুরু করবে সিপিএম। শাসক দলের সৌজন্য প্রসঙ্গে সিপিএম নেতা দেবাশিস ঘোষের বক্তব্য, কেউ সৌজন্যতা দেখালে তা উপেক্ষা করা মানুষের কাজ নয়। তাই প্রধানের দেওয়া গোলাপ ফুল ও মিষ্টির প্যাকেট তাঁরা গ্রহণ করেছেন। কিন্তু ওই পঞ্চায়েতের দুর্নীতি ইস্যুতে সরব থাকবেন। সেজন্য লাগাতার আন্দোলনও চলবে।

Advertisement
Next