Advertisement

রাজ্যের বেকারত্বের বিরুদ্ধে অভিনব প্রতিবাদ বিজেপি নেতার, রাস্তায় বসেই ভাজলেন চপ!

02:33 PM Nov 29, 2020 |

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: একুশের নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে শাসক-বিরোধী তরজা। সকলের সামনে মমতা সরকারের ব্যর্থতাকে তুলে ধরার মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে পদ্মশিবির। পালটা দিচ্ছে ঘাসফুল শিবিরও। এই পরিস্থিতিতে রবিরার অভিনবভাবে শাসকদলের বিরুদ্ধে, রাজ্যের বেকারত্বের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন দুর্গাপুর বিজেপির নেতা কর্মীরা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

রবিবার সকালে দুর্গাপুরের নিউটাউনশিপ থানার বি-১ মোড়ে জমায়েত করেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা। নেতৃত্বে ছিলেন জেলা সভাপতি লক্ষ্ণণ ঘড়ুই। সেখান থেকেই মমতা সরকারের আমলে বেকারত্ব বৃদ্ধির বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন তিনি। এদিন রাস্তায় বসেই চপ ভাজেন জেলা সভাপতি ও দলের নেতারা। সঙ্গে ছিল দেশি মদ। রাস্তায় মদ ঢেপেও শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিজেপি (BJP) কর্মীরা। রাজ্যবাসীর কাছে আবেদন করেন, মানুষের স্বার্থে, উন্নয়নের স্বার্থে, সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে একুশে বাংলার দায়িত্ব বিজেপির হাতে তুলে দেওয়ার।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
ছবি: উদয়ন গুহরায়

[আরও পড়ুন: এবার ‘বেসুরো’ ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল বিধায়ক, ফেসবুকে দলের প্রতি উগরে দিলেন ক্ষোভ]

এদিন প্রতিবাদ স্থল থেকে মমতা (Mamata Banerjee) সরকারকে একহাত নেন পশ্চিম বর্ধমানের বিজেপি সভাপতি লক্ষ্ণণ ঘড়ুই। বলেন, “৩৪ বছরেও রাজ্যে শিল্প হয়নি। কোনও উন্নয়ন হয়নি। শেষ ১১ বছরের পরিস্থিতিও একেবারেই এক। হু হু করে বেড়েছে বেকারত্ব। যুবক-যুবতীদের চাকরির ব্যবস্থা না করে চপ শিল্প করছেন মুখ্যমন্ত্রী। দুষ্কৃতী তাণ্ডবও বেড়েই চলেছে। সেদিকেও রাজ্যের কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই। মুখ্যমন্ত্রী সেসবকে আটকানোর চেষ্টা না করে, বাংলাকে শান্ত করার চেষ্টা না করে সকলকে বলছেন চপ ভাজুন।”

[আরও পড়ুন: ‘পিকে আসায় দলের অনেক ক্ষতি হয়েছে’, তৃণমূল বিধায়ক জটু লাহিড়ীর মন্তব্যে জোর জল্পনা]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next