Advertisement

নিখোঁজ স্ত্রীকে ফিরে পেতে এ কী করলেন ঝাড়গ্রামের যুবক! হতবাক গোটা এলাকা

08:29 PM Mar 29, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সুনীপা চক্রবর্তী, ঝাড়গ্রাম: বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছে স্ত্রী। জীবনসঙ্গীকে ফিরে পেতে মারাত্মক কাণ্ড ঘটালেন জামবনি থানার চিল্কিগড় অঞ্চলের গোদরা গ্রামের যুবক। ধূপ জ্বালিয়ে, সিঁদুর দিয়ে পুজো করে নিজের আঙুলের বেশ কিছুটা অংশ কেটে ফেললেন। ঘটনায় ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

সোমবার সকালে গ্রামের পাশে রক্তমাখা কাটা আঙুল পড়ে থাকতে দেখে চাঞ্চল্য ছড়ায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গোদরা গ্রামের স্থানীয় যুবক হীরাপদ মাহাতোর স্ত্রী রবিবার সকালে কোথাও চলে যান। আর ফিরে আসেননি। স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে কাজ করা হীরাপদ স্ত্রীর খোঁজে বিভিন্ন জায়গায় ফোন করেন। কিন্তু তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। স্থানীয় মানুষজন জানাচ্ছেন রবিবার সন্ধ্যায় গ্রামের এক প্রান্তে করলা খেতের কাছে একটি নির্জন জায়গাতে যান হীরাপত। ধূপ, সিঁদুর দিয়ে পুজো করেন। তারপর কাটারি জাতীয় কোন ধারাল অস্ত্র দিয়ে নিজের একটি আঙুলের অংশ কেটে ফেলেন। স্ত্রীকে ফিরে পাওয়ার জন্যই সে এরকম এমন কাজ করেছেন বলে মনে করছেন স্থানীয় মানুষজন।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1615550701979-0'); });

[আরও পড়ুন: নিমতাকাণ্ডে ডেথ সার্টিফিকেটে ‘বিজেপি প্রার্থী’ চিকিৎসকের সই, প্রার্থীপদ বাতিলের দাবি তৃণমূলের]

উল্লেখ্য, এদিন সকাল থেকে ওই ব্যক্তি ঘরের বাইরে বের হননি। গ্রামের স্থানীয় যুবক প্রবীর মাহাতো বলেন, “হীরাপদ রবিবার আমাকে ফোন করে বলেছিল তার স্ত্রীকে পাওয়া যচ্ছে না। আমি বলেছিলাম ২৪ ঘণ্টা অপেক্ষা করে থানায় নিখোঁজ হিসেবে অভিযোগ করার জন্য। তারপর সন্ধ্যা বেলায় গ্রামের একটি প্রান্তে নিজের আঙুল কেটে ফেলে। হয়তো ভেবেছে এই কাজ করলে তার স্ত্রী ফিরে আসবে। এদিন সকালে আঙুলের কাটা অংশ গ্রামে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এরপরই বিষয়টি জানাজানি হয়।”

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

একই কথা শোনা গেল চিল্কিগড় অঞ্চলের বেলদার বাসিন্দা রঞ্জন দত্তর মুখে। তিনি বলেন, “আমার শুনলাম গোদরা গ্রামের এক ব্যক্তি নিজের আঙুল কেটেছেন। যেটা জানা গিয়েছে স্ত্রীকে ফিরে পাওয়ার জন্য এমন কাজ করেছেন।”

[আরও পড়ুন: স্বস্তি দিয়ে নিম্নমুখী রাজ্যের কোভিড গ্রাফ, দৈনিক সংক্রমণ কমল প্রায় ২০০]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next