Advertisement

কল্যাণকে নিশানা লকেটের, ‘আগামী লোকসভা তৃণমূলের হয়ে লড়বেন’, পালটা দিলেন তৃণমূল সাংসদ

07:46 PM Nov 30, 2020 |

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘গলার লকেটকে পায়ের নুপুর’ মন্তব্যের পালটা দিলেন হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় (Locket Chatterjee)। দাবি করলেন, মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে শ্রীরামপুরের তৃণমূল (TMC) সাংসদের। পালটা দিলেন কল্যাণও।

Advertisement

সোমবার হুগলির মগরার বিভিন্ন এলাকায় আদিবাসী পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। আখনার এক আদিবাসী পরিবারে সারেন মধ্যাহ্নভোজ।

ছবি: দিব্যেন্দু মজুমদার

সেখানে তাঁদের সঙ্গে নাচের তালে পা মেলান। এরপর যান ব্যান্ডেল রেল কলোনিতে। সেখানকার বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করে জানান, তাঁর সঙ্গে রেলমন্ত্রীর কথা হয়েছে। যতদিন না তাদের বিকল্প পুর্নবাসনের ব্যবস্থা হবে ততদিন তাঁরা এই জায়গায় বসবাস করতে পারবেন। বিকেলে হুগলিতেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন হন তিনি। সেখানেই চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন শ্রীরামপুরের সাংসদকে।

[আরও পড়ুন: ‘ওঁ এলে বিজেপি লাভবান হবে’, শুভেন্দুকে স্বাগত জানিয়ে মন্তব্য রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়ের]

এদিন লকেট বলেন, “কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাথা পুরোপুরি খারাপ হয়ে গিয়েছে। প্রত্যেক দিন উনি মহিলাদের নাম ধরে ধরে যেভাবে অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ করছেন তা ধর্তব্যের মধ্যে আনা যায় না। আসলে নিজেকে টিকিয়ে রাখতে দিদিকে খুশি করার জন্য এই ধরনের কথা বলে চলেছেন।” লকেটের কথায়, উনিও বিজেপির লাইনে রয়েছেন। শ্রীরামপুরের সাংসদকে আক্রমণ করে বিজেপি সাংসদ বলেন “দেখুন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ও হয়তো কোনও পাচারের সঙ্গে যুক্ত।” পালটা দিয়েছে তৃণমূল সাংসদ দাবি করেন, তাঁর কাছে খবর রয়েছে যে লকেট চট্টোপাধ্যায় একুশের পর বিজেপি ছেড়ে যোগ দেবে তৃণমূলে। আক্রমণ-পালটা আক্রমণ সরগরম রাজ্য-রাজনীতি।

[আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের বিরোধিতা-সহ একাধিক দাবি, পুরুলিয়ায় উদ্ধার মাওবাদী পোস্টার-ব্যানার]

Advertisement
Next