Coronavirus: পুজোর মুখে নতুন করে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা, গত ২৪ ঘণ্টায় পজিটিভিটি রেট প্রায় সাড়ে ৫%

09:09 PM Sep 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার (Coronavirus) থাবা অনেকটাই কমায় এবছর পুরনো ছন্দে বাঙালির প্রিয় দুর্গাপুজো। মহালয়া থেকেই রাস্তায় মানুষের ঢল। সকলেই চাইছেন আগেভাগে  পুজো মণ্ডপে ঢু মেরে নিতে। এসবের মাঝেই নতুন করে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মারণ করোনা। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন সাড়ে তিনশোর বেশি। যা আগের দিনের তুলনায় অনেকটা বেশি। এই পরিসংখ্যান স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগের। 

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের কোভিড পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭৪ জন। যা আগের দিন ছিল তিনশোর সামান্য বেশি। ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ২১, ১৩,২৪৬। মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। মোট করোনার বলি ২১, ৮৯৬ জন। একদিনে মহামারীর কবল থেকে মুক্ত হয়েছেন ২০২ জন, আগেরদিন তা ছিল সামান্য কম। এই মুহূর্তে রাজ্যে সুস্থতার হার ৯৮.৮৪ শতাংশ। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২০,৮৮,৬২৭জন। এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ কোভিড রোগীর সংখ্যা ৩১২৩, যার মধ্যে ৭৬ জন রোগী ভরতি হাসপাতালে।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ৪৫০ বছর পুরনো রীতি! মূর্তি নয়, পটেই পূজিতা পঁচেটগড় রাজবাড়ির দুর্গা]

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে কোভিডের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৭,০৪৯। এর মধ্যে ৫.৩১ শতাংশ রিপোর্ট পজিটিভ। এদিকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে টিকাকরণ (Corona vaccination) কর্মসূচি চলছে। পুজোর সময়ও তা বন্ধ থাকবে না। রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯, ১৫৩  ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। চলছে প্রিকশন ও বুস্টার ডোজ দেওয়ার কাজ।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });
প্রসঙ্গত, করোনার দাপট অনেকটা কমেছে। ফলে পুজো প্যাণ্ডেলে অধিকাংশের মুখেই নেই মাস্ক, শারীরিক দূরত্ববিধি মানার বালাইও নেই। এই পরিস্থিতির জন্যই ফের করোনা সংক্রমণ বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের পরামর্শ, উৎসবে মেতে ওঠার পাশাপাশি সাবধানতা অবলম্বনও জরুরি। জনবহুল জায়গায় ঘোরার সময় অবশ্যই মাস্ক থাকুক মুখে। সামান্য জ্বর বা সর্দি-কাশি হলে অবহেলা নয়, দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে ওষুধ খান।
 

[আরও পড়ুন: সাতসকালে অস্ত্র-সহ ক্যাম্প থেকে উধাও BSF জওয়ান, কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা]

Advertisement
Next