Advertisement

প্লাস্টার কাটার অনুরোধ করেছিলাম, চিকিৎসকরা আরও ৭ দিন রাখতে বললেন: মমতা

01:34 PM Apr 18, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ”চিকিৎসকদের অনুরোধ করলেও রাজি হননি, তাই এখনও প্লাস্টার নিয়েই নির্বাচনী প্রচার করতে হচ্ছে।”  রবিবার নদীয়ার কৃষ্ণনগর দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায় নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নিজেই একথা জানালেন। গত ১০ মার্চ নন্দীগ্রামে বাঁ পায়ে চোট পান। কলকাতায় ফিরলে তাঁর পায়ে প্লাস্টার হয়। তার পর থেকে প্লাস্টার নিয়েই একের পর এক প্রচারসভা করে চলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। এবার সেই প্লাস্টার কবে কাটা হবে, তার ইঙ্গিতও দিলেন নিজেই।

Advertisement

নন্দীগ্রাম (Nandigram) আসনে লড়াইয়ের জন্য মনোনয় জমা দিতে গিয়ে পায়ে চোট পান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু কয়েক ঘণ্টার বিশ্রাম ছাড়া থেমে থাকেননি। পায়ে প্লাস্টার নিয়েই রাজ্যের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ঘুরে বেড়িয়েছেন। হুইল চেয়ারে বসেই প্রচারে ঝড় তুলছেন। আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পায়ের সেই প্লাস্টার নিয়েও ভোটের বাজারে একাধিক বার কটাক্ষ করেছেন বিরোধীরা। কিন্তু কবে প্লাস্টার কেটে আবার নিজের পায়ে হেঁটে বেড়াবেন সে সম্পর্কে এতদিন বিশেষ কিছু জানা যায়নি।

[আরও পডুন: বালির সরকারি বাসে কি আদৌ চলেছিল গুলি? সিসিটিভি ফুটেজ না মেলায় ধন্দে পুলিশ]

এবার নিজেই জানালেন চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে আরও দিন সাতেক রাখতে হবে প্লাস্টার। কৃষ্ণনগরের সভা থেকে তৃণমূল নেত্রী বলেন, “গতকাল (শনিবার) চিকিৎসকদের অনুরোধ করেছিলাম, এবার প্লাস্টারটা কেটে দিন। একটু কষ্ট হবে কিন্তু তাও চালিয়ে নেবে। কিন্তু চিকিৎসকরা রাজি হননি। আরও ৭ দিন রাখতে বললেন।” তাই মনে করা হচ্ছে, সপ্তম দফার আশপাশেই হতো মঞ্চে আবার চেনা ছন্দে দেখা যাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

[আরও পড়ুন: ভোটের মুখে কলকাতায় উদ্ধার তাজা বোমা, অভিযান চালিয়ে ২ জনকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ]

একই সঙ্গে কৃষ্ণনগরের সভা থেকে চেনা ছকে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন। এনআরসি থেকে করোনার টিকা, নোটবন্দি, লকডাউন সব কিছু নিয়েই মোদি ‘মিথ্যা’ বলছেন বলে মন্তব্য করেন মমতা। তাঁর দাবি সবাই, এখন ‘মিথ্যাবাদী প্রধানমন্ত্রী’ বলে ডাকছেন মোদিকে। তবে তিনি ক্ষমতায় এসে কী কী করছেন এবং ক্ষমতায় ফিরে আরও কী কী করবেন তা আরও একবার মনে করেয়ে দেন মমতা। সেই সঙ্গে কৃষ্ণনগরের সভা থেকে আরও একবার ডাক দেন ‘খেলা হবে’।

কৃষ্ণনগর দক্ষিণের প্রার্থী তথা বিদায়ী মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি বাড়ি থেকে বসেই কাজ করছেন বলে জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। মমতার সভামঞ্চে কৃষ্ণনগরে সাংসদ মহুয়া মৈত্র উপস্থিত ছিলেন।

 

Advertisement
Next