Advertisement

ঘুমন্ত যুবককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গুলি, নৃশংস হত্যাকাণ্ডের সাক্ষী কৃষ্ণনগর

08:49 AM Jun 14, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নৃশংস হত্যা কৃষ্ণনগরে (Krishnagar)। রাতদুপুরে ঘুমন্ত যুবককে তুলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুনের (Murder) অভিযোগ উঠল জনা কয়েক দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। গুলি করে হত্যার পর মৃত্যু নিশ্চিত করতে ধারাল অস্ত্রের কোপ মারা হয় বলে অভিযোগ নিহতের পরিবারের। রবিবার রাতের এই ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। শোকের পাশাপাশি প্রাণভয়ে কাঁটা ওই পরিবার। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। তবে এখনও পর্যন্ত দুষ্কৃতীদের খোঁজ মেলেনি বলে খবর।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

কৃষ্ণনগরের মণীন্দ্র পল্লির বাসিন্দা যুবক পলাশ মণ্ডল। অন্যদিনের মতো রাতে বাড়ি ফিরে খাওয়াদাওয়া করে ঘুমোতে গিয়েছিলেন। প্রায় ভোররাতে বাড়ির দরজায় টোকা। জনা কয়েক যুবক পলাশের খোঁজ করে। জানানো হয় যে পলাশ ঘুমোচ্ছে। তাতে লাভ হয়নি। দুষ্কৃতীরা নিজেরাই তাঁর বাড়ির ঢুকে ঘরে গিয়ে পলাশকে ঘুম থেকে ডেকে তোলে। তারপর তাকে বাড়ির বাইরে নিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পরই গুলির শব্দ শুনতে পান প্রতিবেশীরা। পলাশের পরিবারের সদস্যরা বাড়ির বাইরে বেরিয়ে দেকেন, পলাশের রক্তাক্ত দেহ পড়ে রয়েছে বাড়ির বাইরেই।

[আরও পড়ুন: দু’সপ্তাহেই রহস্যভেদ! বিহারের কুখ্যাত দুষ্কৃতী খুনের পর্দাফাঁস বর্ধমান পুলিশের]

পরিবারের অভিযোগ, রবিবার দিনভর এই দুষ্কৃতীরা বারবার পলাশের খোঁজ করে গিয়েছে। সারাদিন বাড়ি ছিল না সে। রাতে ফিরেছে। কিন্তু এই ফেরাই যে শেষবারের মতো পলাশের বাড়ি ফেরা হবে, তা দুঃস্বপ্নেও ভাবেননি কেউ। পরিবারের সদস্যদের আরও অভিযোগ, পলাশের কান ঘেঁষে গুলি করা হয়েছে। মৃত্যু নিশ্চিত করতে পলাশকে লাঠি দিয়ে মারাও হয় বলে অভিযোগ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনার বলি ৮৪ জন, চিন্তা বাড়াচ্ছে পূর্ব মেদিনীপুরের গ্রাফ]

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, এই দুষ্কৃতীরা কারা? কী কারণেই বা পলাশকে হত্যা? দুষ্কৃতীদের কয়েকজনের নাম উল্লেখ করলেও পলাশকে কেন এমন নৃশংসভাবে খুন হতে হল, তা নিয়ে সম্পূর্ণ অন্ধকারে পরিবার। পলাশ কি তবে কোনওভাবে এই দুষ্কৃতীদলের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছিল কিংবা কোনও কারণে বচসা হয়েছিল? যার প্রতিশোধ নিতে এমন নৃশংসতা? এ বিষয়েও ধারণা নেই কারও। এর সঙ্গে রাজনীতিরও কোনও যোগ আছে বলে মনে করছেন না তাঁরা। আচমকা বাড়ির ছেলেকে এভাবে হারিয়ে শোকে পাথর পরিবারের সদস্যরা। পাশাপাশি, তাঁদের মনে বাসা বেঁধেছে গভীর আতঙ্ক। প্রতিবেশীদের দাবি, দ্রুত দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তার করে কড়া শাস্তি দেওয়া হোক। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next