‘LIC’র আংশিক বেসরকারিকরণের সিদ্ধান্তে হতভম্ব’, বাজেটের কড়া সমালোচনায় নুসরত

12:00 PM Feb 02, 2020 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রীয় বাজেটে সেভাবে বাংলার ভাগ্যে কিছুই জোটেনি।  সাধারণ মানুষের কথা ভেবে বাজেটে কিছুই উল্লেখ করা হয়নি বলেই দাবি বিরোধীদের। সংসদে উপস্থিত না থাকলেও অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের (Nirmala Sitharaman) পেশ করা বাজেটের নিন্দা করলেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ নুসরত জাহান। এলআইসি’র (LIC) আংশিক বেসরকারিকরণের সিদ্ধান্ত নিয়ে টুইটে ক্ষোভ উগরে দেন বসিরহাটের সাংসদ।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ব্যক্তিগত কাজে ব্যস্ত ছিলেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ নুসরত জাহান। তাই কেন্দ্রীয় বাজেট পেশের দিন সংসদে থাকতে পারেননি বসিরহাটের সাংসদ।

Advertising
Advertising

তবে বাজেটে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী সাধারণ মানুষের জন্য কী ঘোষণা করলেন, সেদিকে শনিবার সকাল থেকেই নজর ছিল নুসরতের। বাজেট পেশের পরই টুইট করেন অভিনেত্রী-সাংসদ। কেন্দ্রের বেসরকারিকরণের সিদ্ধান্ত নিয়ে বরাবরই সরব তৃণমূল। দলের পথেই হাঁটেন তারকা সাংসদ। বেসরকারিকরণ নিয়েও টুইটে তাই ক্ষোভ উগরে দেন নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। তিনি লেখেন, “এই বাজেটে অর্থনীতি ও কর্মসংস্থানের কোনও উন্নতি হবে না। এমনকি এই বাজেটে কৃষকদের স্বার্থের কথাও ভাবা হয়নি। রেল, বিএসএনএল, এয়ার ইন্ডিয়ার পর এলআইসি‘র আংশিক বেসরকারিকরণে হতভম্ব।” 

[আরও পড়ুন: বাজেট ২০২০: দেশের পাঁচ ঐতিহাসিক স্থান ঘিরে সংগ্রহশালা তৈরির সিদ্ধান্ত, ব্রাত্যই বাংলা]

কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

এছাড়াও বাজেট নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তৃণমূলের অন্যান্য নেতা ও মন্ত্রীরাও। তৃণমূলের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েনও বাজেট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। 

তবে শনিবার বাজেট পেশের সময় সংসদে ছিলেন যাদবপুরের তারকা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty) কংগ্রেস সাংসদ সুপ্রিয়া সুলে ও বিজেপি সাংসদ কিরণ খেরের সঙ্গে সেলফি তুলতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। ইনস্টাগ্রামে সেই ছবি পোস্টও করেন মিমি। রাজনৈতিক বিবাদ ভুলে এমন ছবি বিশেষ দেখা যায় না বলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় মন্তব্য করেছেন নেটিজেনদের একাংশ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

The post ‘LIC’র আংশিক বেসরকারিকরণের সিদ্ধান্তে হতভম্ব’, বাজেটের কড়া সমালোচনায় নুসরত appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next