Advertisement

রাজনীতিতে যোগ দিচ্ছেন শ্রীলেখা? অভিনেত্রীর সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্ট ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

07:58 PM Nov 24, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গতে বাঁধা পথে তিনি হাঁটার মানুষ নন। আবার স্রোতে ভেসে গতিপথ পালটেও ফেলেন না। নিজের পথ নিজেই তৈরি করতে পছন্দ করেন শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। আগেও কট্টর বামপন্থী ছিলেন, এখনও তাই। তাঁর মতে, লাল পতাকাকে সমর্থন করতে গেলে শিক্ষার প্রয়োজন হয়।  বাম মঞ্চ থেকেই বক্তব্য রাখার ছবি পোস্ট করেছেন টুইটারে। ক্যাপশনে লিখেছেন, “আর কিছু বলার প্রয়োজন নেই”। আর এরপর থেকেই জল্পনা শুরু হয়ে যায়, তবে কি রাজনীতিতে নাম লেখাচ্ছেন অভিনেত্রী?

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ভোটের হাওয়ায় দলবদলের রাজনীতি নতুন নয়। এই স্রোতে গা ভাসান অনেকেই। তবে শ্রীলেখা মিত্রের রাজনৈতিক মতাদর্শ ভিন্ন। তিনি বরাবর বামপন্থাকে সমর্থন করে এসেছেন। কিছুদিন আগেই বাম সমর্থিত এক মঞ্চে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। বরাহনগরে সিপিএমের (CPM) পক্ষ থেকে একটি ফ্রি কোচিং ক্লাসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী। সৌরভ পালধির একটি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পরই তাঁর বামপন্থী হওয়ার কথা প্রকাশ্যে আসে। প্রথম থেকেই এই রাজনৈতিক মতাদর্শকে বেছেছেন তিনি। বাম নেতারাও জানেন সেকথা। 

[আরও পড়ুন: ‘আমার শিক্ষা নিয়ে প্রশ্ন করার অধিকার ওঁর নেই’, বাবাকে বিঁধে মন্তব্য জান কুমার শানুর]

বরানগরের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে অভিনেত্রী জানান, এই প্রজন্মের ভাবার অভ্যাস নেই। তাঁদের সময় লোডশেডিং ছিল, ছাদে মাদুর পেতে পড়াশোনার চল ছিল। এখন আছে শুধু স্মার্টফোন। যা বর্তমান প্রজন্মের চিন্তা, ভাবনার শক্তিকে ভোঁতা করে দিচ্ছে। “আমরাই আসলে বেশি স্মার্ট ছিলাম”, বলেন অভিনেত্রী।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

তাঁর রাজনৈতিক মতাদর্শের কথা প্রকাশ্যে আসতেই জল্পনা শুরু হয়ে যায়। তবে কি রাজনীতির ময়দানে পা রাখতে চলেছেন অভিনেত্রী? আগামী বছর নির্বাচনে কি বিশেষ কোনও চমক অপেক্ষা করে আছে? না, সে বিষয়ে অবশ্য কিছুই বলেননি তিনি। কোনও ইঙ্গিতও দেননি। বরং অভিনয়ের পাশাপাশি পরিচালনার দায়িত্বও সামলানোর প্রস্তুতিতে ব্যস্ত তিনি। ইন্দ্ররূপ ভট্টাচার্যর সঙ্গে মিলে সাইকোলজিক্যাল থ্রিলারের লিখছেন চিত্রনাট্য। অভিনয়ও করছেন তাতে। 

[আরও পড়ুন: কঙ্গনার গ্রেপ্তারিতে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ বম্বে হাই কোর্টের, হাজিরা দিতে হবে থানায়]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next