Advertisement

অর্থের অভাবে সংকটের মুখে বাবার চিকিৎসা, অসহায় বালিকার পাশে ‘ত্রাতা’দেব

12:23 PM May 17, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসহায় মানুষের কষ্টে কেঁদে ওঠেন। তাই তো বারবার এগিয়ে যান আর্তের সহায়তায়। হয়ে ওঠেন ত্রাতা। আরও একবার সেই একই ভূমিকায় অভিনেতা তথা সাংসদ দেব (Dev)। এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তা শুনে ছোট্ট মেয়ে তিতলির পাশে দাঁড়ালেন তিনি।

Advertisement

সম্প্রতি জনৈক নীলঞ্জিত গায়েন নামে এক ব্যক্তি একটি ছোট্ট মেয়ের ভিডিও বার্তা টুইট (Tweet) করেন। ওই ভিডিও বার্তার মাধ্যমে নিজের পরিবারের দুরবস্থার কথাই জানায় তিতলি। জানা গিয়েছে বাবা সন্দীপ এবং মা মুনমুন দত্তের সঙ্গে চুঁচুড়ার অন্তার বাগানে ভাড়া বাড়িতে বাস তার। বাবা সন্দীপ পেশায় একজন সেলসম্যান ছিলেন। তবে তিন বছর ধরে আয় প্রায় বন্ধ। কারণ আয়ের পথে বাদ সেধেছে বাবার শারীরিক অসুস্থতা। প্রথমে প্যাংক্রিয়াসের সমস্যা ধরা পড়ে। মধুমেহর কারণে কিডনি এবং লিভারজনিত সমস্যাও ছিল। প্যাংক্রিয়াসের অস্ত্রোপচারই ছিল সন্দীপবাবুকে সুস্থ করে তোলার একমাত্র উপায়। তবে অস্ত্রোপচারের জন্য প্রয়োজনীয় সাড়ে ৬ লক্ষ টাকা জোগাড় করা হয়নি। তাই বেঙ্গালুরুতে গিয়েও অস্ত্রোপচার করা সম্ভব হয়নি।

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত কবি জয় গোস্বামী, ভরতি বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে]

চলতি বছরের মার্চে যদিও হায়দরাবাদে যায় ছোট্ট তিতলির পরিবার। অস্ত্রোপচার করালেও সুস্থ হওয়ার সম্ভাবনার কথা নিশ্চিতভাবে বলা যাবে না বলেই জানিয়ে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তাই অস্ত্রোপচার না করিয়েই সপরিবারে কলকাতায় ফিরে আসেন তিতলির বাবা। কলকাতার এক হাসপাতালে ভরতিও হন। ততদিনে যদিও কোমরের নিম্নাংশে ইনফেকশন হয়ে যাওয়ায় শয্যাশায়ী হয়ে গিয়েছেন সন্দীপবাবু। বর্তমানে ওষুধ তো দূর অস্ত, দু’বেলা দু’মুঠো অন্ন সংস্থান হওয়াও কঠিন। আর সেকথা নিজের ভিডিও বার্তায় জানায় তিতলি। ওই ভিডিও বার্তাই পৌঁছে যায় তৃণমূল সাংসদ দেবের কাছে। টুইটের জবাবও দেন দেব। ছোট্ট তিতলির পাশে দাঁড়ান তারকা সাংসদ।

চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদারও সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন। রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ছাড়াও সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষই তিতলির পাশে দাঁড়িয়েছেন।

[আরও পড়ুন: সংগীতকার জেমসকে নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট নোবেলের, গায়কের সঙ্গে চুক্তি বাতিল সাউন্ডটেকের]

Advertisement
Next