Advertisement

যোগাভ্যাসের ছবি পোস্ট করায় ইমনকে ধর্ষণের হুমকি! কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ গায়িকা

09:06 AM Jun 13, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় বারবার সমালোচনার শিকার হয়েছেন সংগীত শিল্পী ইমন চক্রবর্তী (Iman Chakrabortty)। ত্রাণের ছবি পোস্ট করে আবার কখনও বিয়ের পর শাখা-সিঁদুর পরেননি কেন তা নিয়েও কটাক্ষের শিকার হয়েছেন তিনি। আর এবার যোগাসনের ছবি পোস্ট করেও নেটিজেনদের একাংশের শুধু তীর্যক মন্তব্যই নয় রীতিমতো ধর্ষণের হুমকি পেলেন গায়িকা।

Advertisement

গত শুক্রবার সকালে যোগাসন করার বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেন ইমন। তাতে লেখেন, “স্ট্রেচ স্ট্রেচ… গুড মর্নিং।” তাঁর এই ছবি পোস্ট হওয়ামাত্রই লাইক, কমেন্টের বন্যা বইতে থাকে। কেউ কেউ তাঁর ফিটনেসের প্রশংসা করেন। তবে এক যুবক আচমকাই ইমনকে ধর্ষণের হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। তা নজরে আসতে নেটিজেনরা বিরোধিতা করেন। এ ধরনের মন্তব্য করা অনুচিত, তা কমেন্ট বক্সেই জানান তাঁরা। তবে কেউ কেউ আবার ওই যুবককে পরোক্ষে সমর্থন করে। যোগাসনের ভঙ্গিমায় দেওয়া ছবিকে অশালীন বলতেও ছাড়েননি তারা। ওই যুবককে কমেন্ট নজর এড়ায়নি খোদ শিল্পীরও। তিনি ওই যুবককে কমেন্টটি কলকাতা পুলিশকে ট্যাগ করেন। তবে লালবাজারে গিয়ে অভিযোগ জানানোর মতো সময় বর্তমানে তাঁর হাতে নেই বলেই জানা গিয়েছে।

[

[আরও পড়ুন: ‘দুনিয়াটা বোধহয় এভাবেই চলে’, নুসরত বিতর্কের মাঝে কী বলতে চাইলেন নিখিল?]

ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’ বা ‘ইয়াস’-এর দাপটে বাংলার উপকূলের জেলাগুলির অবস্থা বেশ সঙ্গীণ। কোথাও ভেঙেছে নদীবাঁধ। আবার কোথাও সমুদ্রের নোনা জল এখনও গ্রামে ঢুকে রয়েছে। তার ফলে চাষবাসও করা সম্ভব হচ্ছে না। খাবার, পানীয় জলের অভাবেও ‘ত্রাহি ত্রাহি রব’। সেই সমস্ত দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সংগীত শিল্পী ইমন। গ্রামে গ্রামে ঘুরে ত্রাণ বিলি করছেন তিনি। এর আগে ত্রাণ বিলির প্রস্তুতির ছবি পোস্ট করেও কটাক্ষের শিকার হন ইমন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে ত্রাণ বিলি করবেন না, এমন তীর্যক মন্তব্যও সহ্য করতে হয়েছিল সংগীত শিল্পীকে। তার আগে একটি রিয়ালিটি শো নিয়েও নানা কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছিল ইমনকে। তবে সরাসরি ধর্ষণের হুমকি মেলায় বেজায় ক্ষুব্ধ সংগীত শিল্পী। একজন খারাপ বললেই, কেউ খারাপ হয়ে যায় না বলেই মন্তব্যও করেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘তৈমুরের মা কীভাবে সীতা হন?,’ রামায়ণে অভিনয়ের খবর ছড়াতেই নেটদুনিয়ার রোষানলে করিনা]

Advertisement
Next