Advertisement

৩২ লক্ষ টাকার আর্থিক প্রতারণা! আমিশা প্যাটেলের বিরুদ্ধে জারি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

09:08 PM Nov 30, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইনি বিপাকে অভিনেত্রী আমিশা প্যাটেল (Ameesha Patel)। প্রায় ৩২ লক্ষ টাকা আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ উঠল তাঁর বিরুদ্ধে।  জামিন যোগ্য ধারায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে।  আগামী ৪ ডিসেম্বরের মধ্যে হাজির হতে হবে ভোপালের আদালতে।   

Advertisement

আমিশার বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ আনা হয়েছে UTF টেলিফিল্ম প্রাইভেট লিমিটেডের (UTF Telefilms Private Limited) পক্ষ থেকে। সংস্থার পক্ষ থেকে আদালতে ভোপালে ডিস্ট্রিক্ট ও সেশন কোর্টে সওয়াল করেন আইনজীবী রবি পন্থ। তাঁর অভিযোগ, সিনেমা তৈরি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিজের প্রযোজনা সংস্থার নামে ৩২ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা নিয়েছিলেন আমিশা। পরে তা চেকের মাধ্যমে ফেরত দেন। কিন্তু তাঁর দেওয়া সেই চেক বাউন্স হয়ে যায়। তারপরই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার মামলা করা হয়।

[আরও পড়ুন: কপিলদের বিশ্বজয়ের খতিয়ান অবিকল তুলে ধরবে ’83’, মুক্তি পেল ট্রেলার

আইনজীবীর বক্তব্য শুনেই আমিশার বিরুদ্ধে জামিন যোগ্য ধারায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। অর্থাৎ এখনই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হবে না। অগ্রিম জামিনের সুযোগ থাকবে। আগামী ৪ ডিসেম্বরের মধ্যে অভিনেত্রীকে আদালতে হাজির হতে হবে। তা না হলে অ্যারেস্ট ওয়ারেন্ট জারি করা হবে বলেও জানা গিয়েছে। 

‘কহোনা প্যায়ার হ্যায়’ সিনেমায় হৃতিক রোশনের বিপরীতে নিজের অভিনয় সফর শুরু করেন আমিশা। প্রথম ছবিই ছিল ব্লকবাস্টার হিট। পরে সানি দেওলের বিপরীতে ‘গদর: এক প্রেম কথা’ সিনেমায় নজর কাড়েন। সে ছবিও ছিল সুপারহিট। তারপর থেকে বলিউডে অনেক ছবিতেই অভিনয় করেন। তবে সাফল্য সেভাবে পাননি। এখন অবশ্য় ‘গদর ২’ (Gadar 2) সিনেমায় অভিনয় করছেন। এর মধ্যেই আর্থিক প্রতারণা মামলায় জড়ালেন। উল্লেখ্য, এর আগেও অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। ২০১৯ সালে ইন্দোরে ১০ লক্ষ টাকার চেক বাউন্স হওয়ার অভিযোগ উঠেছিল।  সে বছর রাঁচিতেও নাকি অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে আর্থিক তছরুপের অভিযোগ ওঠে। 

[আরও পড়ুন: মদ্যপ ছিলেন না নদিয়ার দুর্ঘটনাগ্রস্ত গাড়ির চালক! ময়নাতদন্তের রিপোর্টে চাঞ্চল্যকর তথ্য

Advertisement
Next