সারা দেশে মুক্তি পাচ্ছে ‘বেলাশুরু’, ছবির সাফল্যে ঋতুপর্ণাকে শুভেচ্ছা আরবাজ খানের!

07:52 PM May 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতাকে বড্ড ভালবাসেন তিনি। অন্যান্য বলিউডি সেলিব্রিটিদের মতোই, মিষ্টি দই, সন্দেশ তাঁরও প্রিয়। কিন্তু কলকাতার রসগোল্লার থেকেও প্রিয়, এ শহরের মানুষরা। সম্প্রতি কলকাতায় একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এমনটাই জানিয়ে ছিলেন সলমন খানের ভাই তথা বলিউড অভিনেতা ও প্রযোজক আরবাজ খান (Arbaaz Khan)। আর এবার কলকাতা বিশেষ করে বাংলার প্রতি প্রেম উজাড় করতে আরবাজ সাহায্য নিলেন নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের ছবি ‘বেলাশুরু’র (Belashuru)। যে ছবি রাজ্য জুড়ে হইচই ফেলে দিয়েছে, সেই ছবি নিয়ে এবার আগ্রহ প্রকাশ করলেন বলিউডের আরবাজ খান!

Advertisement

ব্যাপারটা একটু খোলসা করে বলা যাক। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (Soumitra Chatterjee) ও স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত (Swatilekha Sengupta) অভিনীত এই ছবি নিয়ে সিনেপ্রেমীদের মধ্যে উচ্ছ্বাস সর্বত্র। আর এবার সেই উচ্ছ্বাসকে সঙ্গে নিয়েই গোটা ভারতে মুক্তি পেতে চলেছে বেলাশুরু। আগামী ২৭ মে ভারতবর্ষের কোণায় কোণায় পৌঁছে যাবে নন্দিতা ও শিবপ্রসাদের এই ছবি। এই খবরটি পেয়েই ‘বেলাশুরু’ ছবির অন্যতম অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে (Rituparna Sengupta) শুভেচ্ছা জানান আরবাজ খান। নিজের ইনস্টাগ্রামে ‘বেলাশুরু’ ছবির পোস্টার শেয়ার করে, ঋতুপর্ণাকে ছবির সাফল্য নিয়ে শুভেচ্ছা জানান আরবাজ।

Advertising
Advertising

আরবাজ খানের সঙ্গে ‘কাল ত্রিঘোরি’ নামের একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা। সেই সিরিজ থেকেই ঋতুপর্ণা ও আরবাজের বন্ধুত্ব। ঋতুপর্ণা সংবাদ মাধ্যমে জানিয়ে ছিলেন, আরবাজ খুবই মাটির মানুষ। আরবাজের মধ্যে সেলেব সুলভ কোনও আচরণই নেই। বেলাশুরুর জন্য আরবাজের এই শুভেচ্ছা যেন ঋতুপর্ণার এই কথার জলন্ত উদাহরণ।

[আরও পড়ুন: ১৭ বছরের লিভ-ইন পার্টনারকে বিয়ে করলেন জাতীয় পুরস্কারজয়ী পরিচালক হনসল মেহতা]

মুক্তির দিনই ৩৫ লক্ষ টাকার ব্যবসা করেছে ‘বেলাশুরু’। উইকএন্ডে ছবির ব্যবসা আরও ভাল হয়েছে। তৃতীয় দিনেই ১ কোটি ৪১ লক্ষ টাকা আয় করে শিবপ্রসাদ ও নন্দিতা জুটি পরিচালিত ছবি। চতুর্থ দিনে ছবির আয় ছিল প্রায় ২৮ কোটি টাকা। আর পঞ্চম দিন? পঞ্চম দিনের আয় প্রায় দু’কোটি টাকার কাছাকাছি।

এ শুধু ‘বেলাশুরু’র সাফল্য নয়, গোটা বাংলা সিনেমা জগতের সাফল্য বলেই মনে করেন ছবির অন্যতম পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় (Shiboprosad Mukherjee)। এর আগে সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি জানান, ‘বেলাশুরু’র এই সাফল্য সৌমিত্র-স্বাতীলেখা জুটির ম্যাজিকের জোরে। তাছাড়া বাংলার দর্শক ভাল কনটেন্ট পেলে তাঁরা হলে সিনেমা দেখতে চলে আসেন। করোনা পরিস্থিতিতেও সিনেমা হলে আসার অভ্যাস তৈরি হয়েছে। সুদিনের এই সাফল্যে প্রত্যেক বাংলা সিনেমার অবদান রয়েছে বলেই মত শিবপ্রসাদের।

[আরও পড়ুন: ‘অপরাজিত’ দেখে মুগ্ধ সিআইডির ডিআইজি, কফি দিয়ে আঁকলেন নায়ক জিতুর ছবি ]

 

Advertisement
Next