The Kashmir Files: বাংলাদেশ থেকে বাঙালি হিন্দুদের উৎখাত নিয়ে ছবি নয় কেন? ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’দেখে প্রশ্ন তসলিমার

11:33 AM Mar 19, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুক্তির আগে থেকেই ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ ছবি নিয়ে উত্তপ্ত রাজনৈতিক মহল। ছবি মুক্তি পাওয়ার পর যার আঁচ আরও বেড়েছে। আর এই তর্কবিতর্কের সৌজন্যেই মাত্র সাত দিনে বক্সঅফিসে ১০০ কোটির গণ্ডি পার করে ফেলল বিবেক অগ্নিহোত্রীর ছবিটি। এবার ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ (The Kashmir Files) দেখে নিজের প্রতিক্রিয়া জানালেন তসলিমা নাসরিন।

Advertisement

নব্বইয়ের দশকে কাশ্মীর থেকে কীভাবে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের উৎখাত করা হয়েছিল, কীভাবে পরিবারগুলির উপর চলেছিল নিপীড়ন, সেই বাস্তব চিত্রই ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছেন পরিচালক। ছবির প্রশংসা শোনা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) গলায়। তবে বিরোধীরাও তোপ দাগতে ছাড়েনি। তাদের অভিযোগ, অর্ধসত্য দেখানো হয়েছে ছবিতে। অনেকে আবার একে মোদি সরকারের প্রচারমূলক ছবি বলেও কটাক্ষ করেছেন। তবে ছবিটি দেখে একেবারে ভিন্ন প্রতিক্রিয়া দিলেন বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা (Taslima Nasreen)।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: ‘যুদ্ধ না থামালে কয়েক প্রজন্মেও রাশিয়ার ক্ষতিপূরণ হবে না’, হুমকি জেলেনস্কির]

শুক্রবার টুইটারে তিনি লেখেন, “দ্য কাশ্মীর ফাইলস দেখলাম। যদি ছবিটির গল্প ১০০ শতাংশ সত্যি হয়, কোনও বাড়তি রং না থাকে, অর্ধসত্য কাহিনি না হয়, তাহলে সত্যিই অত্যন্ত কষ্টের কাহিনি। কাশ্মীরি পণ্ডিতদের কাশ্মীরে থাকার অধিকার ফিরিয়ে দেওয়া উচিত। তবে আমি বুঝি না, কেন বাংলাদেশ থেকে বাঙালি হিন্দুদের উৎখাত নিয়ে কোনও ছবি তৈরি হয়নি।”

Advertising
Advertising

১৯৭১ সালে বাঙালি উৎখাত নিয়ে উত্তাল হয়েছিল বাংলাদেশ। পাকিস্তানি সেনা ওই সালে লক্ষ লক্ষ হিন্দুদের হত্যা করে, ধর্ষণ করে। জগন্নাথ হলে একরাতে ১০ হাজার হিন্দুকে মেরে ফেলা হয়েছিল। এই গণহত্যা চলেছিল ১০ মাস ধরে। যাতে ২০ থেকে ৩০ লক্ষ মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরেও ইসলামিক কট্টরপন্থীরা হিন্দুদের উৎখাতের প্রক্রিয়া চালিয়ে গিয়েছিল। সেই কলঙ্কিত ইতিহাসই ছবি হিসেবে তুলে ধরার আরজি জানালেন তসলিমা।

[আরও পড়ুন: হোলিতে হিন্দুত্ববাদীদের রোষানলে রোহিত শর্মা, টুইটারে ট্রেন্ডিং ‘ঋতিকা আপনা কুত্তা সামাল’]

Advertisement
Next