শুরু হওয়ার ৩ মাস পরই বন্ধ হচ্ছে ‘মাধবীলতা’, বদলে কোন আসছে ধারাবাহিক?

04:04 PM Nov 28, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শুরু হওয়ার মাস তিনেক পরই বন্ধ হচ্ছে ‘মাধবীলতা’ সিরিয়াল (Madhabilata Serial)। এমনই খবর শোনা গিয়েছিল। এক সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে জল্পনায় সিলমোহর দিয়েছেন নায়ক সুস্মিত মুখোপাধ্যায়। জানান, আগামী বুধবার অর্থাৎ ৩০ নভেম্বর ধারাবাহিকে শেষ শুটিং। কেন এত তাড়াতাড়ি ধারাবাহিকের সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে সে বিষয়ে অবশ্য কিছু জানাননি সুস্মিত।

Advertisement

Advertising
Advertising

চলতি বছরের ২২ আগস্ট স্টার জলসা চ্যানেলে ‘মাধবীলতা’ সিরিয়ালের প্রথম এপিসোড সম্প্রচারিত হয়। জঙ্গলের প্রেক্ষাপটে সাজানো হয়েছে গোটা গল্প। গ্রামের প্রভাবশালী ব্যক্তি পুষ্পরঞ্জন চৌধুরী এলাকার জঙ্গল কেটে চোরাচালান করে। অন্যদিকে গ্রামের অনুষ্ঠানে বৃক্ষরোপণ করে। তার ছেলে সবুজ ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার। ছবি তুলতে গিয়ে তাঁর নজরে আসে মাধবীলতার লড়াই। মাধবীলতার প্রেমে পড়ে সবুজ। দু’জনের বিয়ে হয়। এখন দু’জনের সম্পর্ককে কেন্দ্র করেই গল্প এগোচ্ছে। ধারাবাহিকে সবুজের চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুস্মিত। আর মাধবীলতা ‘জীবন সাথী’ খ্যাত শ্রাবণী ভুঁইয়া।

[আরও পড়ুন: ‘ভিত্তিহীন তথ্য দিচ্ছেন’, উরফি জাভেদকে এবার ‘মিথ্যেবাদী’ কটাক্ষ চেতন ভগতের]

কিছুদিন আগেই ধারাবাহিকের একটি দৃশ্য নেটদুনিয়ায় হাসির খোরাক হয়। দৃশ্যটিতে মাধবীলতা নিজের পড়াশোনার কথা জানাতে গিয়ে বলে, “প্রত্যন্ত গ্রামে জন্মাইছি বলে কি আমরা অশিক্ষিত? আমি পদার্থবিদ্যায় ৯৮ পাইছি ১০০-র মধ্যে।” মাধবীলতার মুখে একথা শুনে অবাক হয় নায়ক সবুজ। তবে মাধবীলতা থামে না। সে আবারও বলে, “আর ২ নম্বর পায়নি কেন জানেন? যে কলমটা দিয়ে পরীক্ষায় লিখছিলাম সে কলমটার কালি ফুরায়ে গিয়েছিল।” এমন সংলাপেই হাসির রোল ওঠে। কেউ লেখেন, “কালি ফুরাইয়া গেলে শত, হাজারবার ঘষিলেও কালি পরিবে না।” কেউ আবার লেখেন, “কালি শেষ হয়ে যাওয়ার পর সে আর কোন কলম পায়নি, কারণ বাকিরা অন্য কলম দিয়ে এই নাটকের স্ক্রিপ্ট লেখছিল।”

যদিও ট্রোলের জন্য নয় কম টিআরপির কারণেই নাকি বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে ‘মাধবীলতা’ সিরিয়াল। তার বদলে দেখা যেতে পারে নতুন ধারাবাহিক ‘পঞ্চমী’। এই ধারাবাহিকের মাধ্যমেই ছোটপর্দায় কামব্যাক করছেন রাজদীপ গুপ্ত। নায়িকা হিসেবে দেখা যাচ্ছে ‘অপরাজিতা অপু’ ধারাবাহিকের অপুর চরিত্রে অভিনয় করা সুস্মিতা দে-কে।

[আরও পড়ুন: জেলে অনুব্রত, আসানসোল আদালতে ‘আইনজীবী’ শতাব্দী! ব্যাপারটা কী?]

Advertisement
Next