কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ, একদিনে গণছুটির পথে ৩৫ হাজার স্টেশন মাস্টার! স্তব্ধ হতে পারে রেল পরিষেবা

01:20 PM May 22, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অভিনব সংকটে ভারতীয় রেল (Indian Railway)। এবার স্টেশন মাস্টারদের বিক্ষোভে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে স্তব্ধ হয়ে যেতে পারে রেল পরিষেবা। সূত্রের খবর, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে একই দিনে গণছুটির আবেদন করেছেন প্রায় ৩৫ হাজার স্টেশন মাস্টার। শেষ পর্যন্ত যদি তাঁরা সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন, তাহলে বড়সড় সমস্যায় পড়ে যাবে ভারতীয় রেল।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

সূত্রের খবর অল ইন্ডিয়া স্টেশন মাস্টারর্স অ্যাসোসিয়েশন (All India Station Masters Association) নামের স্টেশন মাস্টারদের একটি সংগঠন আগামী ৩১ মে দেশজুড়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। ওই সংগঠনের মোট ৩৫ হাজার সদস্য ৩১ মে গণছুটির আবেদন জানিয়েছেন। তাঁদের অভিযোগ, ২০২০ সাল থেকে কেন্দ্রের কাছে বেশ কিছু দাবিদাওয়া পেশ করা হলেও সরকার তাতে কর্ণপাত করেনি। AISMA নামের ওই সংগঠনটির এক নেতা জানিয়েছেন, তাঁরা নিজেদের দাবি দাওয়া জানিয়ে রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানকে চিঠিও দিয়েছেন তাতেও কাজের কাজ হয়নি।

[আরও পড়ুন: ঘুরপথে কলকাতায় মাঙ্কিপক্স ঢুকছে না তো? জ্বর-মাথার যন্ত্রণায়ও আইসোলেশনের পরামর্শ]

স্টেশন মাস্টারদের দাবি কী কী? ওই সংগঠনটির বক্তব্য, সরকারকে বারবার সমস্ত শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ, রেলে বেসরকারিকরণ বন্ধ, নাইট ডিউটির ভাতা চালু, উপযুক্ত নিরাপত্তার প্রদানের মতো বেশ কিছু দাবিতে সেই ২০২০ সাল থেকে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। বারবার নানাভাবে কেন্দ্রের কাছে নিজেদের দাবি পেশ করা হলেও, সেটা পূরণ করা হয়নি। শান্তিপূর্ণভাবে নিজেদের দাবি আদায়ের সবরকম চেষ্টা করার পরও লাভ হয়নি। সেকারণেই এই সিদ্ধান্ত নিয়ে তাঁরা বাধ্য হয়েছেন।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: তামিলনাড়ুতে হদিশ করোনার নয়া ভ্যারিয়েন্টের, দেশে একদিনে অনেকটা বাড়ল মৃতের সংখ্যা]

AISMA নামের সংগঠনটির দাবি, রেলের স্টেশন মাস্টাররা গণছুটি নিলে গোটা পরিষেবা স্তব্ধ হয়ে যেতে পারে। ১৯৯৭ সালে একবার ২ মিনিটের জন্য সব স্টেশন মাস্টার ধর্মঘট করেছিল, তাতেই পরিষেবা স্বাভাবিক হতে ২-৩ দিন সময় লেগে যায়। গোটা দিন যদি স্টেশন মাস্টাররা কাজ না করেন, তাহলে পরিষেবা পুরোপুরি স্তব্ধ হয়ে যাবে। যদিও কেন্দ্রের আশা, এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না সরকারকে। আগেই আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়া যাবে।

Advertisement
Next