উত্তরপ্রদেশে কসাইখানা বন্ধে কাজ হারাচ্ছে ‘মুসলিম ভাই’রা, যোগীকে বোমা মেরে হত্যার হুমকি

09:12 PM Aug 14, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক’দিন আগেই উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে (Yogi Adityanath) বোমা বিস্ফোরণে উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছিল। ওই ঘটনায় এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছিল পুলিশ। সপ্তাহ ফুরোনোর আগেই ফের যোগীর প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হল। এবার উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও ভারতীয় কিষাণ মঞ্চের জাতীয় সভাপতি তথা জনস্বার্থ মামলাকারী দেবেন্দ্র তিওয়ারিকেও (Devendra Tiwari) বোমা মারার হুমকি দেওয়া হয়েছে। উত্তরপ্রদেশে কসাইখানা বন্ধের নির্দেশের প্রেক্ষিতেই এই হুমকি দেওয়া হয়েছে, জানিয়েছে পুলিশ। ইতিমধ্যে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।

Advertisement

উত্তরপ্রদেশ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার দেবেন্দ্র তিওয়ারির বাড়িতে হুমকি চিঠি আসে। চিঠিতে রাজ্যে একাধিক কসাইখানা বন্ধের বিরোধিতা করা হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের কারণে ‘প্রতিশোধ’ নেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে। দেবেন্দ্র তিওয়ারির পিআইএলের (PIL) কারণে অনেক ‘মুসলিম ভাই’ তাঁদের জীবিকা হারিয়েছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। সবশেষে দেবেন্দ্র ও যোগীকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দেশের দৈনিক করোনা গ্রাফে আরও খানিকটা স্বস্তি, তবে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে মাঙ্কিপক্স]

উত্তরপ্রদেশে যোগী মুখ্যমন্ত্রী হয়ে বসার পর থেকেই কসাইখানা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। বেআইনি কসাইখানা ও গরুপাচার বন্ধের জন্য রাজ্য পুলিশকে সম্প্রতি ‘অ্যাকশন প্ল্যান’ তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। ইতিমধ্যে সরকারের নির্দেশ মেনে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বহু মাংসের দোকান। এই কসাইখানা বন্ধের দাবিতে জনস্বার্থ মামলা করেন দেবেন্দ্র তিওয়ারি। সেই কারণেই যোগী ও তিওয়ারিকে হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে মনে করছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। তদন্তে নেমে সলমন সিদ্দিকি নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে পুলিশ।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: স্বাধীনতা দিবসের আগে কাশ্মীরে জেহাদি কার্যকলাপ অব্যাহত, এবার গ্রেনেডে প্রাণ গেল পুলিশকর্মীর]

এর আগে ২ আগস্ট উত্তরপ্রদেশ পুলিশের কন্ট্রোল রুমের হোয়াটসঅ্যাপ হটলাইন নম্বরে (UP Police WhatsApp Hotline Number) যোগীকে হুমকি দিয়ে একটি মেসেজ আসে। জনৈক শাহিদ ওই হুমকি দেয়। সে বোমা বিস্ফোরণে মুখ্যমন্ত্রীকে হত্যা করার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল। গোটা ঘটনায় তীব্র আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছিল লখনউতে। মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের নিরাপত্তা আরও আঁটসাঁট করে পুলিশ। 

Advertisement
Next