বাজিমাত তেজসের, ভারতের থেকে যুদ্ধবিমান কিনতে আগ্রহী খোদ আমেরিকা

12:18 PM Aug 06, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিন বা রাশিয়ার যুদ্ধবিমান নয়। ভারতের তেজস (Tejas) ফাইটার জেট কিনতেই আগ্রহী মালয়েশিয়া (Malaysia)। আগেই শোনা গিয়েছিল এমনটা। এবার কেন্দ্রের তরফে জানানো হল মালয়েশিয়াকে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ১৮টি যুদ্ধবিমান বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শুধু মালয়েশিয়াই নয়, ভারতের তৈরি ফাইটার জেট কিনতে চায় আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়া, মিশর, আমেরিকা, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপিন্স। শুক্রবার এক বিবৃতিতে এমনটাই জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

গত বছরই ভারত সরকার হিন্দুস্তান অ্যারোনটিকস লিমিটেড-এর (হ্যাল) সঙ্গে ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি চুক্তি করেছে ৮৩টি তেজস বিমান তৈরি করার জন্য। ২০২৩ সাল থেকেই বিমানগুলি তৈরি হয়ে যাবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্সি জেলের ২ নম্বর সেলে ঠাঁই পার্থর, কীভাবে কাটল প্রথম রাত?]

তেজস ‘লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফট’টি সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মীত। বায়ুসেনার জরাগ্রস্ত মিগ-২১ বিমানগুলির জায়গা নেবে তেজস। ইতিমধ্যেই একাধিক পরীক্ষায় সফলভাবে উতরেছে বিমানটি। ২০২০ সালে প্রায় ২০ হাজার ফুট উচ্চতায় রুশ নির্মিত ‘আইএল-৭৮’ জ্বালানিবাহী বিমান থেকে ইন্ধন ভরা হয় তেজসে। স্বল্প সময়েই প্রায় ১৯ হাজার লিটার জ্বালানি পৌঁছে যায় যুদ্ধবিমানটির পেটে। মাঝ আকাশে জ্বালানি ভরে বিশ্বের প্রথম সারির সামরিক শক্তির তালিকায় নাম লেখায় ভারত। এবার সেই বিমান অন্য দেশকে বিক্রির সিদ্ধান্ত নিল ‘আত্মনির্ভর’ ভারত।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

গত মাসেই জানা গিয়েছিল, ভারতের তৈরি হালকা ওজনের তেজস যুদ্ধবিমান মালয়েশিয়ার খুব পছন্দ হয়েছে। হ্যালের চেয়ারম্যান তথা ম্যানেজিং ডিরেক্টর আর মাধবন পিটিআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যুগের সঙ্গে তালমিলিয়ে বায়ুসেনার আধুনিকীকরণ করতে চাইছে মালয়েশিয়া। বাহিনীর পুরনো যুদ্ধবিমানগুলি বদলে এবার অত্যাধুনিক ফাইটার জেট মোতায়েন করতে চাইছে কুয়ালালামপুর। আর তাই এবার তেজসের উপরই নির্ভর করতে চাইছে তারা।

[আরও পড়ুন: কমনওয়েলথ গেমস: কুস্তিতে সোনা জয় বজরং-সাক্ষী-দীপকের, রুপো অংশু মালিকের]

প্রতিরক্ষার বিষয়ে বিদেশের প্রতি নির্ভরতা কমিয়ে আত্মনির্ভর হয়ে ওঠাই লক্ষ্য মোদি সরকারের। আর সেদিকেই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ তেজসের মতো বিমান তৈরি। চিনের জেএফ-১৭ জেটগুলির দাম কম হলেও তেজস মার্ক-১-এর মতো অতটা আধুনিক নয়। তাছাড়া, ভবিষ্যতে চাইলে দ্রুত মার্ক-২ ভ্যারিয়েন্টও পেতে পারে মালয়েশিয়া। যে সুবিধা চিন দিতে পারবে না। আর সেদিক থেকেই বেজিংকে টেক্কা দিয়ে বাজিমাত ভারতের।

Advertisement
Next