ত্রিপুরায় ফের ধাক্কা বিজেপির, দল ছাড়লেন আরও এক বিধায়ক

07:19 PM Sep 23, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচন (Tripura Assembly Elections) আর মাত্র কয়েকমাস বাদেই। এরই মধ্যে ফের ধাক্কা খেল ত্রিপুরা বিজেপি। এবার দল ছাড়লেন দলের উপজাতি বিধায়ক বুর্বমোহন ত্রিপুরা। ত্রিপুরার রাজ পরিবারের সদস্য প্রদ্যোত কিশোর মাণিক্য দেববর্মণের দল তিপ্রা মোথায় যোগ দিতে পারেন তিনি।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

শুক্রবার ত্রিপুরার বিধানসভা অধ্যক্ষের কাছে নিজের পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন বিজেপি (BJP) বিধায়ক। অধ্যক্ষ রতন চক্রবর্তী জানিয়েছেন, এই ব্যাপারে সব আইনি দিক খতিয়ে দেখেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বুর্বমোহন ত্রিপুরা (Tripura) প্রথমবার বিজেপির টিকিটে বিধায়ক হয়েছিলেন। তবে বেশ কিছুদিন ধরেই বেসুরো শোনাচ্ছিল তাঁকে। দলের বিক্ষুব্ধ বিধায়ক হিসেবেই চিহ্নিত ছিলেন। অনেকদিন ধরেই দল ছাড়বেন বলে ইঙ্গিত দিয়ে আসছিলেন। অবশেষে দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করলেন। বৃহস্পতিবার রাজ্যসভার (Rajya Sabha) নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী বিপ্লব দেবকে ভোট দেওয়ার পরই তিনি পদত্যাগ করলেন। জানা গিয়েছে, বুর্বমোহন তিপ্রা মোথাতে যোগ দেবেন। পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার সময় তার সাথে মহারাজ প্রদ্যোত কিশোর দেববর্মণও গিয়েছিলেন অধ্যক্ষের কাছে।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: অধিকৃত ইউক্রেনে গণভোট শুরু রাশিয়ার, পর্তুগালের সমান ভূখণ্ড হাতছাড়া কিয়েভের!]

এই নিয়ে গত কয়েকমাসে বিজেপি ও তাদের জোটসঙ্গীদের ৪ বিধায়ক পদত্যাগ করলেন। এর আগে আইপিএফটির বিধায়ক বৃষকেতু দেববর্মা পদত্যাগ করেন। অধ্যক্ষ জানিয়েছেন, তাঁর পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়েছে। এর আগে বিধায়ক পদ ছাড়েন আশিস দাস ও সুদীপ রায়বর্মণ। যদিও বুর্বমোহনদের পদত্যাগে দলের কোন প্রভাব পড়বে না বলে দাবি করেছে বিজেপির প্রদেশ নেতৃত্ব।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: সঙ্গীর পকেটে কন্ডোমের রসিদ! রাগে নিজের রিভলবার চালিয়ে খুন করলেন মহিলা পুলিশকর্মী]

রাজ্য বিধানসভা নির্বাচন আর মাত্র কয়েকমাস বাকি। এই মুহূর্তে ত্রিপুরার রাজনীতিতে প্রতিদিন মেরুকরণ তীব্র হচ্ছে। ক্রমেই উপজাতি এলাকায় শক্তিশালী হচ্ছে তিপ্রা মোথা (Tipra Motha)। যদিও বিপ্লব দেব রাজ্যসভার সাংসদ হওয়ার পর নতুন করে আবার জল্পনা তৈরি হয়েছে। কারন তিপ্রা মোথার চেয়ারম্যান মহারাজ প্রদ্যোত কিশোর দেববর্মণের (Pradyot Bikram Manikya Deb Barma) সঙ্গে বিপ্লব দেবের সম্পর্ক বরাবরই ভাল। এক্ষেত্রে বিপ্লব দেব রাজ্য রাজনীতিতে পুনরায় সামনের সারিতে চলে আসায়, এখন প্রদ্যোত কিশোর কি করেন, সেটাই দেখার।

Advertisement
Next