Advertisement

সামরিক সহযোগিতা বাড়িয়ে তুলতে মার্কিন সেনাপ্রধানের সঙ্গে ফোনালাপ নারাভানের

03:57 PM May 12, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে সহযোগিতা বাড়িয়ে তুলতে মার্কিন ফৌজের শীর্ষকর্তার সঙ্গে ফোনে আলোচনা সারলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বন্দুকবাজের নিশানায় রাশিয়ার স্কুল, এলোপাথাড়ি গুলিতে প্রাণ গেল ১১ পড়ুয়ার]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, মঙ্গলবার মার্কিন সেনার চিফ অফ স্টাফ জেমস সি ম্যাককনভিলের সঙ্গে ফোনে বেশ কিছুক্ষণ আলোচনা করেন ভারতীয় সেনাপ্রধান নারাভানে। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে সহযোগিতা ও গোয়েন্দা তথ্যের আদানপ্রদান নিয়ে দুই সেনাকর্তার মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে খবর। এছাড়া, ভূ-কৌশলগত সমীকরণ নিয়েও কথা হয় দু’জনের মধ্যে। বলে রাখা ভাল, প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে কয়েক দশকের অবস্থান অনেকটাই পালটেছে নয়াদিল্লি। রাশিয়ার সঙ্গে বন্ধুত্ব বজায় রাখলেও অস্ত্র আমদানির ক্ষেত্রে ওয়াশিংটনকে বরাত দিতে কার্পণ্য করছে না মোদি সরকার। আর সবটাই হচ্ছে চিনের আগ্রাসী গতিবিধিকে নজরে রেখে। ভারত মহাসাগরে যেভাবে চিনা রণতরী ঘোরাফেরা করছে, তা নিয়ে উদ্বেগে রয়েছে সাউথ ব্লক। এক্ষত্রে মস্কো ও ওয়াশিংটন দু’পক্ষের সঙ্গেই ভারসাম্য বজায় রাখার চেষ্টা করছে মোদি সরকার।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি QUAD গোষ্ঠীতে যোগ না দিতে বাংলাদেশের উপর চাপ বাড়িয়েছে চিন। এহেন পরিস্থিতিতে ভারত ও মার্কিন সেনাপ্রধানদের মধ্যে আলোচনা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। চিনকে (China) নজরে রেখে ব্লক তৈরির চেষ্টা শুরু হয়েছিল সেই ২০০৭ সাল থেকেই। অবশেষে বেজিংয়ের রক্তচক্ষুকে অবজ্ঞা করে গত মার্চ মাসে প্রথম চতুর্দেশীয় অক্ষ বা QUAD রাষ্ট্রপ্রধানদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। লালফৌজকে নজরে রেখে কোয়াড গোষ্ঠীর চার সদস্য দেশ– ভারত, আমেরিকা, জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে সহযোগিতা বাড়ানো এবং ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে কৌশলগত আদানপ্রদান গভীর করাই এই মঞ্চের লক্ষ্য বলে প্রাথমিক বিবৃতিতে জানান নেতারা। বিশেষ করে, চিনকে রুখতে ভারতই যে আমেরিকার ভরসা তা আবারও স্পষ্ট হয়ে ওঠে।

[আরও পড়ুন: অ্যাস্ট্রাজেনেকার এক ডোজ টিকা করোনায় মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতে পারে ৮০%, দাবি গবেষণায়]

Advertisement
Next