Advertisement

অসমের ৮ সংবাদপত্রে একসঙ্গে বিজেপির জয়ের ‘খবর’, কমিশনে নালিশ কংগ্রেসের

03:09 PM Mar 30, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসমের সংবাদপত্রে দেওয়া বিজেপির (BJP) একটি বিজ্ঞাপনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কমিশনের (Election Commission of India) দ্বারস্থ হল কংগ্রেস (Congress)। তাদের অভিযোগ, বিজেপির বিজ্ঞাপনটিতে নির্বাচনী বিধিভঙ্গ করা হয়েছে।

Advertisement

রবিবার অসমের (Assam) সমস্ত সংবাদপত্রের প্রথম পাতায় বিজেপির পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছিল। যাতে দাবি করা হয়েছিল, শনিবার প্রথম দফার ভোটে বিজেপি উজান অসমের সব আসনেই জিতবে। রাজ্যের শাসকদলের এই দাবিকে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের শামিল বলে অভিযোগ করেছেন কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা (Randeep Surjewala)। নির্বাচন কমিশনের কাছে প্রতিবাদ জানিয়ে তাঁর প্রশ্ন ,কেন এই ধরনের বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল, অসম বিজেপির সভাপতি রঞ্জিত দাস এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হবে না? কেন অপসারণ করা হবে না রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিককে?

[আরও পড়ুন: চাপের মুখে সিদ্ধান্ত বদল, ভিটেহারা মায়ানমারবাসীকে আশ্রয় দেবে মণিপুর!]

উল্লেখ্য, গত ২৬ মার্চ নির্বাচন কমিশন নির্দিষ্টভাবে নির্দেশ জারি করে ২৭ মার্চ থেকে ২৯ এপ্রিলের মধ্যে নির্বাচনের (Assam Election) ফলাফল সম্পর্কে কেউ কোনওরকম মন্তব্য বা ধারণা দিতে পারবে না। নির্দেশ অমান্য করা হলে ১৯৫১ সালের রিপ্রেজেন্টেশন অফ দ্য পিপল অ্যাক্টের ১২৬ (এ) ধারা অনুযায়ী অপরাধ বলে বিবেচিত হবে। কংগ্রেসের দাবি, তাদের অভিযোগ নির্বাচন কমিশন গুরুত্ব দিয়ে শুনেছে এবং অসমের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের কাছ থেকে ব্যাখ্যা তলব করেছে। অসম পুলিশ (Assam Police) অবশ্য আদর্শ নির্বাচনী আচরণ বিধিভঙ্গের অভিযোগে বিজেপির বিরুদ্ধে দিসপুর থানায় রবিবার রাতে এফআইআর করেছে। বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা, মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল, রাজ্য বিজেপি সভাপতি রঞ্জিত দাস-সহ আট বিজেপি নেতার নাম রয়েছে এফআইআরে।

বিজেপি অবশ্য কংগ্রেসের অভিযোগকে গুরুত্ব দিতে নারাজ। তাদের দাবি, সব রাজনৈতিক দলই নির্বাচনে জেতার জন্যই লড়াই করে। সব আসনেই জিততে চায়। প্রথম দফায় আমরা সব আসনে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। সেই দাবিই করা হয়েছে মাত্র। সর্বানন্দ সোনওয়ালের (Sarbananda Sonowal) বক্তব্য, “কংগ্রেসের অভিযোগের কোনও ভিত্তি নেই।”

[আরও পড়ুন: দিল্লিতে পার্কের ভিতরে প্রবীণ বিজেপি নেতার রহস্যমৃত্যু! শুরু তদন্ত ]

Advertisement
Next