‘কমদামি গ্যাসে কি বাঙালিদের মাছ রেঁধে খাওয়াবেন?’ BJP সাংসদ পরেশ রাওয়ালের মন্তব্যে বিতর্ক

03:01 PM Dec 02, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রোহিঙ্গা শরণার্থী প্রসঙ্গ টেনে বাঙালিদের তীব্র অপমান করলেন বিখ্যাত অভিনেতা পরেশ রাওয়াল (Paresh Rawal)। গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচনের (Gujarat Assembly Election) প্রচারে গিয়ে অসম্মানজনক মন্তব্য করেন এই বিজেপি সাংসদ (BJP MP)। তিনি বলেন, কিছুদিন পরে রান্নার গ্যাসের দাম কমে যাবে। কিন্তু তাতে লাভ কী হবে? বাঙালিদের মাছ রান্না করে খাওয়াবেন গুজরাটবাসী? এই মন্তব্যের পরে ব্যাপক জনরোষের মধ্যে পড়তে হয় হেরা ফেরি অভিনেতাকে। তৃণমূলের আইটি শাখার প্রধান দেবাংশু ভট্টাচার্য একহাত নেন বিজেপি নেতাকে। বাধ্য হয়ে টুইট করে ক্ষমাপ্রার্থনা করেছেন তিনি।

Advertisement

বৃহস্পতিবার ভালসাদে বিজেপির হয়ে প্রচার করতে গিয়েছিলেন পরেশ রাওয়াল। সেখানে বক্তৃতা দিয়ে গিয়ে গ্যাসের দামের প্রসঙ্গ টেনে আনেন তিনি। মঞ্চে দাঁড়িয়ে বলেন, “গ্যাসের দাম বাড়লে তা আবার কমে যাবে। মূল্যবৃদ্ধি হলে সেটাও লাগামের মধ্যে চলে আসবে। সকলের কর্মসংস্থানও হবে। কিন্তু দিল্লির মতো আপনাদের চারপাশেও রোহিঙ্গা আর বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীরা ঘুরে বেড়ায়, তখন কী করবেন? কমদামের গ্যাসে মাছ রান্না করে বাঙালিদের খাওয়াবেন?” এই মন্তব্যের পরেই তীব্র কটাক্ষের মুখে পড়তে হয় বর্ষীয়ান অভিনেতাকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং হয়ে যায় #বাঙালি।

[আরও পড়ুন: ‘হিন্দুরা দাঙ্গা করে না’, শাহর ‘উচিত শিক্ষা’ মন্তব্যে সমর্থন হিমন্তর]

তৃণমূলের (TMC) আইটি শাখার প্রধান দেবাংশু ভট্টাচার্য বলেন, “গ্যাসের দাম বাড়লে তার প্রভাব হিন্দু-মুসলিম সকলের উপরেই পড়ে। পরেশ রাওয়াল নিজে ও মাই গডের মতো সিনেমায় অভিনয় করেছেন। ধর্ম নিয়ে ব্যবসা করার প্রতিবাদ করেছেন সিনেমায়। সেই তিনি দু’টো ভোট পাওয়ার জন্য গুজরাটে গিয়ে এই ধরনের কথা বলছেন। এই কথাগুলি অত্যন্ত অসম্মানজনক। পরেশের মনে রাখা দরকার, বাংলাতেও তাঁর ছবি মুক্তি পায়। সেখানে তিনি বলছেন, কমদামে গ্যাস নিয়ে কি বাঙালিদের মাছ রান্না করে খাওয়াবেন? নাম না করে সকল বাঙালিকে অনুপ্রবেশকারী বলেছেন বিজেপি সাংসদ।”

Advertising
Advertising

তোপের মুখে পড়ে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হন পরেশ রাওয়াল। শুক্রবার সকালে একটি টুইট করে তিনি বলেন, “মাছের কথাটি এখানে প্রাসঙ্গিক নয়। গুজরাটের মানুষও মাছ রান্না করে খান। বাঙালি জাতিকে অপমান করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না। বাঙালি বলতে বেআইনি বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গাদের কথা বোঝাতে চেয়েছি। তবে আমার কথায় কারোওর ভাবাবেগে আঘাত লাগলে ক্ষমা চাইছি।” 

[আরও পড়ুন: একদিনেই ১ কোটির চাকরির অফার ২৫ পড়ুয়াকে, নয়া রেকর্ড মাদ্রাজ আইআইটির]

Advertisement
Next