ভারত জোড়ো যাত্রায় ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’স্লোগান! বিজেপির দাবিতে শোরগোল, পালটা কংগ্রেসের

08:45 PM Nov 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাহুল গান্ধীর (Rahul Gandhi) ভারত জোড়ো যাত্রায় বড়সড় বিতর্ক। রাহুলের যাত্রায় নাকি দেওয়া হয়েছে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান। এমনটাই দাবি বিজেপির শীর্ষস্তরের একাধিক নেতার। কংগ্রেস (Congress) অবশ্য পুরো বিষয়টি অস্বীকার করেছে। হাত শিবিরের দাবি, বিজেপি ভুয়ো তথ্য ছড়াচ্ছে। যারা এই ধরনের বিভ্রান্তিকর, ভুয়ো ভিডিও ছড়াচ্ছে, তাঁদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপেরও হুঁশিয়ারি দিয়েছে হাত শিবির।

Advertisement

বিতর্কের সূত্রপাত বিজেপি (BJP) আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যর পোস্ট করা একটি টুইট ঘিরে। মালব্য শুক্রবার ২১ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ক্লিপ প্রকাশ করে দাবি করেন, কংগ্রেসের যাত্রায় পাকিস্তানের নামে জয়ধ্বনি দেওয়া হচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে আসরে নামেন বিজেপি নেতা তথা মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। তিনি বলে দেন, ভারত জোড়ো (Bharat Jodo) যাত্রায় পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান দেওয়া হচ্ছে। বুঝতে পারছি না, এটা ভারত জোড়ার যাত্রা, নাকি ভারতের শত্রুদের একত্রিত করার যাত্রা?” মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সাফ বলে দেন, যারা পাকিস্তানের নামে জয়ধ্বনি দেয়, তাদের কোনওভাবেই ছাড়া হবে না। কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: পুর-সংশোধনী আইনে বাড়ল সুবিধা, বাড়ি, ফ্ল্যাট কিনলে রেজিস্ট্রেশনের সঙ্গেই মিউটেশন]

যদিও, কংগ্রেস বিজেপির এই অভিযোগ পুরোপুরি খারিজ করে দিয়েছে। কংগ্রেস সাংসদ জয়রাম রমেশ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, বিজেপি যে ভিডিও ছড়াচ্ছে, সেটি ভুয়ো। ভারত জোড়ো যাত্রার বিরাট সাফল্যে বিজেপির মাথা ঘুরে গিয়েছে। তাই এভাবে যাত্রাকে বদনাম করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যারা যারা এই ভুয়ো ভিডিও ছড়াচ্ছে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ারও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: B.Ed ও D.El.Ed কলেজ পিছু ৫০ হাজার টাকা আদায় করেন মানিক! আদালতে দাবি ইডির]

উল্লেখ্য, প্রায় আড়াই মাস ধরে চলছে রাহুলের ভারত জোড়ো যাত্রা। তামিলনাড়ু থেকে শুরু হয়ে অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, মহারাষ্ট্র পেরিয়ে যাত্রা আপাতত মধ্যপ্রদেশে। তিনদিন ধরে সেরাজ্যে রয়েছেন ভারত যাত্রীরা। এদিকে শুক্রবারই রাহুলের যাত্রায় যোগ দিয়েছেন অলিম্পিকে পদক জয়ী বক্সার বিজেন্দর সিং। বেশ কিছুক্ষণ রাহুলের সঙ্গে হাঁটেন তিনি। বিজেন্দরের (Vijender Singh) সঙ্গে রাহুলের যোগাযোগ অবশ্য নতুন কিছু নয়। আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন এই বক্সার সরকারিভাবে কংগ্রেসে যোগও দিয়েছিলেন। তবে, তাঁর এই যাত্রায় হাঁটা বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

Advertisement
Next