শারীরিক সম্পর্কের বিনিময়ে টাকার দাবি! না পাওয়ায় ব্যবসায়ীকে নগ্ন করে মারধর প্রেমিকার

09:32 PM Jul 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যুবতীর সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক করে চরম হেনস্তার স্বীকার হলেন মুম্বইয়ের এক ব্যবসায়ী। লুট হল টাকা, সোনার গয়নাও। ওই যুবতীর সঙ্গে মাঝেমাঝে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতেন ব্যবসায়ী। পালটা যুবতী তাঁর থেকে টাকা নিত। সম্প্রতি যুবতী ৫ লক্ষ টাকা দাবি করে। এত টাকা দিতে নারাজ হন ব্যবসায়ী। এরপর বাউন্সার ভাড়া করে ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে যুবতী। মারধর করার পাশাপাশি তাঁকে নগ্ন করে একটি ফ্ল্যাটে আটকে রাখা হয় বলেও অভিযোগ। শেষ পর্যন্ত টাকা আর সোনার গয়না দিয়ে যুবতীর হাত থেকে মুক্ত পান ব্যবসায়ী। থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এই ঘটনায় যুবতী ও দুই বাউন্সারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

Advertisement

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মুম্বইয়ের (Mumbai) দোম্বিভলির বাসিন্দা ওই ব্যবসায়ীর নাম এস গায়কোয়াড়। তাঁর সঙ্গে গত ছয় মাস ধরে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ২২ বছরের সঞ্জনা রাঠোরের। সঞ্জনা মাঝমাঝেই টাকা নিত। তবে সম্প্রতি পাঁচ লক্ষ টাকা চেয়ে বসে। ব্যবসায়ী তা দিতে রাজি হননি। বরং যুবতীর সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করেন ব্যবসায়ী। বিষয়টি একবারেই পছন্দ হয়নি যুবতীর। সে দু’জন বাউন্সার ভাড়া করে। তাঁদেরকে সঙ্গে নিয়ে ব্যবসায়ীর অফিসে গিয়ে তাঁকে মারধর করে। এমনকী ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে গিয়ে থানের একটি ফ্ল্যাটে আটকে রাখে।

[আরও পড়ুন: ‘মদের চেয়ে গাঁজা ভাল, অপরাধ প্রবণতা কমায়’, বিজেপি বিধায়কের আজব দাবিতে বিতর্ক]

অভিযোগ, ব্যবসায়ীকে নগ্ন করে একটি ঘরে আটকে রাখা হয়। মারধর করা হয়। এরপর চোখ বাঁধা অবস্থায় নিয়ে যাওয়া হয় একটি এটিএম বুথে। সেখান থেকে অভিযুক্তদের ৬০ হাজার টাকা তুলে দেন ব্যবসায়ী। তাতেও অবশ্য মুক্ত মেলেনি। ক’দিন পর তাঁরই বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয় ব্যবসায়ীকে। সেই সময় তাঁর স্ত্রী বাড়ি ছিলেন না। আলমারি থেকে ২ লক্ষ টাকা ও বেশকিছু সোনার গয়না অভিযুক্তদের দেন ব্যবসায়ী।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: রাজ্যসভার সাংসদ পদের দাম ১০০ কোটি, প্রতারণা চক্রের পর্দাফাঁস সিবিআইয়ের]

পুলিশ সূত্রে খবর, এর তিন দিন পর ব্যবসায়ী মুক্ত পান অভিযুক্তদের হাত থেকে। যদিও এরপরেই তিনি পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ জানিয়েছে, সঞ্জনাকে সহযোগিতা করেছে যে দুই বাউন্সার, তাঁরা হলেন অজয় যাদব ও ফোরেমান সাইনি। সঞ্জনা রাঠোর-সহ তিন অভিযুক্তকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Advertisement
Next