Advertisement

অরুণাচল সীমান্তে অশান্তির ছক! তিব্বতে দ্রুত রেললাইন তৈরির নির্দেশ শি জিনপিংয়ের

10:22 PM Nov 08, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লাদাখের পর এবার অরুণাচল প্রদেশের সীমান্তে অশান্তি পাকানোর ছক কষছে ড্রাগন। আর সেই কারণেই তিব্বতের উপর দিয়ে রেললাইন তৈরির কাজ দ্রুত শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। লালফৌজের গতিবিধি ও জিনপিং প্রশাসনের কর্মকাণ্ড দেখে এমনটাই দাবি করছেন কূটনীতিবিদরা।

Advertisement

অরুণাচল প্রদেশের ওপারে অবস্থিত তিব্বত (Tibet) -এর লিনঝি থেকে চিনের দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে অবস্থিত সিচুয়ান প্রদেশের চেংডু পর্যন্ত ৪৭.৮ বিলিয়ন ডলারের রেল প্রকল্প তৈরি করছে চিন। রবিবার প্রশাসনিক আধিকারিকদের সেই কাজ দ্রুত শেষ করার নির্দেশ দিলেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং (Xi Jinping)। এই রেল প্রকল্প চিনের সীমান্ত এলাকা সুরক্ষিত রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলেও দাবি করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্ট পদের মেয়াদ শেষ হলেই ট্রাম্পকে ডিভোর্স দেবেন মেলানিয়া, জল্পনা তুঙ্গে ]

এদিকে চিনের প্রেসিডেন্টের এই তৎপরতার পরেই নড়েচড়ে বসেছে নয়াদিল্লি। অরুণাচল সীমান্তে কড়া নজরদারি চালানো হলেও এখনও পর্যন্ত অবশ্য তিব্বতে রেল প্রকল্প তৈরি নিয়ে কোনও মন্তব্য করেনি তারা। তবে আকারে ইঙ্গিতে লালফৌজের কোনওরকম দুঃসাহসিক কাজকর্ম মেনে নেওয়া হবে না বলেই জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কুইনঘাই-তিব্বত রেল প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার পরেই সিচুয়ান-তিব্বত (Sichuan-Tibet) রেললাইন তৈরির কাজ শুরু করে জিনপিংয়ের প্রশাসন। সিচুয়ান প্রদেশের রাজধানী চেংডু থেকে ইয়ান ও কোয়ামডো হয়ে তিব্বতের লাসা পর্যন্ত ট্রেন চালুর পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। এর ফলে চেংডু থেকে লাসা যেতে ৪৮ ঘণ্টার পরিবর্তে মাত্র ১৩ ঘণ্টা লাগবে। এবং লিনঝি (Linzhi) এলাকাতেও পৌঁছে যাবে খুব কম সময়ে। এর ফলে খুব সহজেই অরুণাচল প্রদেশের সীমান্তে আরও বেশি সংখ্যক সেনা মোতায়েন করতে সমর্থ হবে চিন। সেই কারণেই প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এই প্রকল্পের কাজ দ্রুত শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: কারাবাখের শহর দখলের দাবি আজারবাইজানের, অস্বীকার করল আর্মেনিয়া]

Advertisement
Next