‘কালা জাদু করছে কংগ্রেস’, মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে প্রতিবাদকে তীব্র কটাক্ষ মোদির

07:34 PM Aug 10, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে কালো পোশাক পরে প্রতিবাদ করেছিলেন কংগ্রেস সাংসদরা। সেই প্রতীকী প্রতিবাদকে ‘কালা জাদু’ বলে অভিহিত করে তোপ দাগলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নাম না করে কংগ্রেস নেতাদের কটাক্ষ করে মোদি (Narendra Modi) বলেছেন, হতাশায় ডুবে থাকা অবস্থায় কালো পোশাক পরে কালা জাদু করছে কিছু মানুষ।

Advertisement

বাদল অধিবেশনের শুরু থেকেই মূল্যবৃদ্ধির (Price Hike) প্রসঙ্গ নিয়ে উত্তপ্ত হয়েছে সংসদের দুই কক্ষ। গত ৫ আগস্ট মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে কালো পোশাক পরে সংসদে যান কংগ্রেস (Congress) সাংসদরা। তাছাড়াও কালো পোশাক পরে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন তাঁরা। সেই প্রসঙ্গ টেনে এনে মোদি বলেছেন, “হতাশা এবং নেতিবাচক চিন্তার মধ্যে পড়ে কিছু মানুষ কালা জাদুকে আশ্রয় করে বাঁচতে চাইছে। গত ৫ আগস্ট তারা ব্ল্যাক ম্যাজিক (Black Magic) প্রদর্শন করতে এসেছিল। ওরা ভাবছে, কালো পোশাক পরলেই ওদের ব্যর্থতার সময় কেটে যাবে।”

[আরও পড়ুন: ‘স্বামী যেন দেহ না ছোঁয়’, লিপস্টিকে সুইসাইড নোট লিখে আত্মঘাতী তরুণী]

এখানেই না থেমে মোদি আরও বলেন, “সরকারের বিরুদ্ধে লাগাতার মিথ্যা কথা প্রচার করছে কিছু মানুষ। তবে যতই মিথ্যা প্রচার করা হোক না কেন, মানুষ তাদের কথা বিশ্বাস করবে না।” সাম্প্রতিক কালে উন্নয়নমূলক প্রকল্প হিসাবে বিনামূল্যে উন্নয়নের পথ গ্রহণ করছে বেশ কিছু রাজনৈতিক দল। কিন্তু প্রথম থেকেই এহেন কার্যাবলির তীব্র বিরোধিতা করে এসেছে। এমনকি সুপ্রিম কোর্টের কাছে মামলাও দায়ের করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই প্রসঙ্গ টেনেও বক্তব্য রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী।

Advertising
Advertising

বিনামূল্যে সুবিধা প্রদান করে আসলে সংকীর্ণ রাজনীতি করছে দলগুলি, দাবি করেছেন মোদি। তিনি বলেছেন, “বিনামূল্যে সুবিধা দিলে ভবিষ্যত প্রজন্মের অধিকার কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। আত্মনির্ভরতার পথে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। করদাতাদের উপরেও চাপ বাড়বে।” প্রসঙ্গত, গুজরাটে নির্বাচনের আগে সেরাজ্যে বিনামূল্যে নানা রকম সুবিধা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে আম আদমি পার্টি। সেই পদক্ষেপের তীব্র বিরোধিতা করে শীর্ষ আদালতে মামলা দায়ের করেছে কেন্দ্র। পালটা মামলা করা হয়েছে আপের তরফেও। বৃহস্পতিবার সেই মামলার শুনানি হওয়ার কথা।

[আরও পড়ুন: রেলে ফিরুক প্রবীণ নাগরিকদের জন্য ছাড়, সুপারিশ কেন্দ্রীয় কমিটির]

Advertisement
Next