Advertisement

করোনাযুদ্ধে এ পর্যন্ত দেশে ৩৮২ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে, জানাল IMA

08:18 AM Sep 17, 2020 |

আনলকের চতুর্থ দফাতেও দেশে বেলাগাম সংক্রমণ। ভারতে এই মুহূর্তে মহামারীতে আক্রান্ত ৫০ লক্ষ ২০ হাজার ৩৬০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৮৫ হাজার  ০৯৯ জনের। রাজ্যে মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ১২ হাজার  ৪৩৩ জন। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪,১২৩ জনের। করোনা সম্পর্কিত সমস্ত আপডেট:

Advertisement

রাত ১০.৩০: করোনা যুদ্ধে এ পর্যন্ত দেশে ৩৮২ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। সরকারকে জানাল কেন্দ্র সরকার।

রাত ১০.০৩: অসমে একদিনে করোনা আক্রান্ত ২ হাজার ৩৯৪ জন।

রাত ৯.৫৫: লাদাখে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৩৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ জনের।

রাত ৯.৩৭: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গড়কড়ি করোনা আক্রান্ত। নিজেই টুইট করে সে খবর জানালেন। গতকাল চেকআপের সময় তাঁর লালারস পরীক্ষা করা হয়। আপাতত সুস্থই রয়েছেন মন্ত্রী। রয়েছেন হোম আউসোলেশনে। তাঁর সংস্পর্শে আসা সকলকে আইসোলেশনে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মন্ত্রী।

রাত ৯.০০: করোনা আক্রান্ত হলেন খড়গপুর মহকুমা হাসপাতাল সুপার কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায়। তিনি জানালেন বুধবার সন্ধ্যায় আরটিপিসিআর পরীক্ষার রিপোর্ট এসেছে। সেই রিপোর্টে করোনা পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে। তিনি জানিয়েছেন শুকনো কাশি ছাড়া তাঁর অন্য কোনও উপসর্গ নেই।

রাত ৮.৪০: শ্মশানে সাব-রেজিস্টারের কাছে লিখিত আবেদন করলে দাহ হওয়ার পর মিলবে করোনার মৃতের অস্থিভস্ম। শুধু তাই নয়, দাহ হওয়ার আগেই পরিবারের তরফে আবেদনপত্র জমা দিতে হবে পুরসভার দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকের কাছে।  তবেই সৎকার সম্পূর্ণ হওয়ার পর মাটির স্যানিটাইজ হাড়িতে করে বিনামূল্যে পাওয়া যাবে প্রিয়জনের শেষ স্মৃতিচিহ্ন। 

রাত ৮.৩০: করোনায় মৃত্যুতে শবদেহ সৎকারে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের পৃথক গাইডলাইন রয়েছে। তা সত্ত্বেও এ রাজ্যে করোনা রোগীর মৃতদেহ সৎকার নিয়ে একাধিক বেনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। সমস্যা নিরসনে এবার রাজ্যে করোনায় মৃত্যুতে শবদেহ সৎকারে গাইডলাইন বেঁধে দিল কলকাতা হাই কোর্ট। 

রাত ৮.১৫: ওড়িশায় নজির গড়ে একদিনে সুস্থ হলেন ৪১২১ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হলেন এক লক্ষ ২৯ হাজার ৮৫৯ জন।

রাত ৮.০৫: রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৩,২৩৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬১ জনের।

রাত ৮টা: উত্তরাখণ্ডে নতুন করে আক্রান্ত ১৫৪০ জন। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হল ৩৫,৯৪৭।

সন্ধ্যা ৭.৫০: পিপিই, মাস্ক ও স্যানিটাইজার-সহ একাধিক চিকিৎসা সরঞ্জাম রপ্তানির উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে কেন্দ্র। বুধবার একথা জানালেন কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।

সন্ধ্যা ৭.২০:  কেরলে ৩৮৩০ জনের শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া গেল। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হল আরও ১৪ জনের।

সন্ধ্যা ৭টা: জম্মু ও কাশ্মীরে নতুন করে আক্রান্ত ১৫৯০ জন।

সন্ধ্যা ৬.৪০:  অন্ধ্রপ্রদেশে নতুন করে আক্রান্ত ৮,৮৩৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৪ জনের।

সন্ধ্যা ৬.২০:  হিমাচল প্রদেশে ফের আক্রান্ত ১৭৮ জন।

বিকেল ৫.৫০: গুয়াহাটি করোনা যুদ্ধে জয়ী হলেন ১০০ বছরের বৃদ্ধা। এই খবর জানিয়ে টুইট করেছেন অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা।

বিকেল ৫.৩০: মণিপুরে নতুন করে আক্রান্ত ৭ জন। এর ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছল ৯২৯ জনে।

বিকেল ৫টা: চণ্ডীগড়ে আজ থেকে চালু হল বাস পরিষেবা।

বিকেল ৪.৩০: করোনা ও বন্যার কারণ ক্ষতিগ্রস্ত অসমের চা ব্যবসায়ীরা।

দুপুর ৩.৩০: ভারতের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের থেকে ছাড়পত্র পেলেই ডা. রেড্ডিস ল্যাবরেটরিকে ১০০ মিলিয়ন Sputnik-V ডোজ সরবরাহ করবে রাশিয়া।

দুপুর ৩.২০: আক্রান্ত হলেন দিল্লির বিজেপি সভাপতি আদেশ গুপ্তা।

দুপুর ২.৩০: অন্য রাজ্য থেকে হিমাচল প্রদেশে প্রবেশের ক্ষেত্রে কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট লাগবে না বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুর।

বেলা ২.০০: প্লাজমা দিলেন করোনাজয়ী চিকিৎসক ফুয়াদ হালিম। 

বেলা ১. ৩৬: মহারাষ্ট্রে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ২৪৭ জন পুলিশ কর্মী।

 

বেলা ১.০০: হিমাচল প্রদেশে নতুন করে সংক্রমিত ৭৬ জন।

বেলা ১২. ১০: করোনা আক্রান্ত এক SIT আধিকারিক।

সকাল ১১. ৪০: করোনা আক্রান্ত কর্ণাটকের মন্ত্রী বাসভারাজ বম্মাই। নিজেই টুইটে একথা জানালেন তিনি। 

 

সকাল ১১.০০: ওড়িশায় একদিন সংক্রমিত ৪, ২৭০ জন।

সকাল ১০.২০: রাজস্থানে নতুন করে সংক্রমিত ৮০২ জন।

সকাল ১০.০০: মহারাষ্ট্রে মোট সংক্রমিত ১০ লক্ষের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত ১৭,০০০ জন। 

সকাল ৯. ৩০: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সংক্রমিত ৯০, ১২৩ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা পেরল ৫০ লক্ষের গণ্ডি।

সকাল ৯. ১০: তেলেঙ্গানায় নতুন করে আক্রান্ত ২,২৭৩ জন। 

সকাল ৮. ৫৬: ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে করোনা পরীক্ষা হয়েছে মোট ৫, ৯৪, ২৯, ১১৫ জনের। 

 

সকাল ৮. ৪৫: মৃত্যুর ২ মাস পর করোনায় মৃতের দেহের সন্ধান পেলেন পরিবারের সদস্যরা। গোটা ঘটনায় কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মৃতের পরিবারের সদস্যরা।

সকাল ৮. ৩৫: আনলক ৪-এ খুলে দিল্লিতে খুলে গেল জিম। তবে সেখানে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে।

সকাল ৮. ২০: রাত পোহালেই বিশ্বকর্মা পুজো। কিন্তু করোনার কারণে ব্যবসায় মন্দা প্রতিমা কারিগরদের।

 

সকাল ৮. ১৫: করোনার কারণে আশ্রয় হারিয়েছে অনেকের। তাঁদের কথা চিন্তা করে নিজের নির্মীয়মাণ একটি আবাসন দিয়ে দিলেন গুজরাটের এক ব্যবসায়ী। তিনি জানিয়েছেন, সামান্য কিছু অর্থের বিনিময়ে যতদিন প্রয়োজন যে কেউ সেখানে আশ্রয় নিতে পারেন। 

সকাল ৮.০০: হরিয়ানায় নতুন করে করোনা সংক্রমিত ২,৪৯৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৬ জনের।

 

The post করোনাযুদ্ধে এ পর্যন্ত দেশে ৩৮২ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে, জানাল IMA appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next