Advertisement

আগরতলার কোভিড কেয়ার সেন্টার থেকে পলাতক ৩০ জন রোগী! আতঙ্কে কাঁটা স্থানীয়রা

09:39 PM Apr 22, 2021 |
Advertisement
Advertisement

প্রণব সরকার, আগরতলা: ত্রিপুরার রাজধানীর অরুন্ধতী নগরের পিআরটিআই কোভিড কেয়ার সেন্টার থেকে বৃহস্পতিবার পালিয়ে গেলেন ৩০ জন করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত রোগী। এঁরা সকলেই বিভিন্ন রাজ্য থেকে ত্রিপুরায় এসেছিলেন টিএসআর-এর নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করার জন্য। ত্রিপুরায় প্রবেশের পর তাঁদের কোভিড পরীক্ষা করা হলে, ৩০ জনেরই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপরই অরুন্ধতী নগরের পিআরটিআই কোভিড (COVID-19) কেয়ার সেন্টারে আইসোলেশনে রাখা হয়েছিল তাঁদের। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালে কোভিড কেয়ার সেন্টারের দরজা ভেঙে পালিয়ে যায় তাঁরা। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই আতঙ্কিত হয়ে ওঠেন সকলে। তাঁদের খুঁজে বের করতে দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে যায় পুলিশ মহলে।ইতিমধ্যেই পিআরটিআই কোভিড কেয়ার সেন্টারের তরফ থেকে রাজধানীর এডি নগর থানায় ৩০ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর নামে মিসিং ডায়েরি দায়ের করা হয়েছে।

Advertisement

সূ্ত্রের খবর, যারা এদিন কোভিড কেয়ার সেন্টার থেকে পালিয়েছেন তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বিহারের ১৪ জন, উত্তর প্রদেশ রাজ্যের ৭ জন, রাজস্থানের ৬ জন, মধ্যপ্রদেশের ২ জন এবং একজন পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা। এদের নাম – দীপক সিং (মধ্যপ্রদেশ) , আহমেদ আলি (বিহার), দীনেশ কুমার  (রাজস্থান) , নীতেশ কুমার (রাজস্থান), অভিমুন্য যাদব, সুনীল কুমার যাদব, আদিত্য কুমার (বিহার), অশোক কুমার সাইনি (রাজস্থান), অঞ্জন কুমার, অমিত কুমার, দীপক কুমার, শ্যাম কুমার, সঞ্জিত কুমার (বিহার), কাম পাল সিং (মধ্যপ্রদেশ), চন্দন কুমার পাঠক (বিহার), রাম নিবাস গুজ্জার (রাজস্থান), মানব মণ্ডল (পশ্চিমবঙ্গ)।

[আরও পড়ুন: করোনার কোপ, ভোট প্রচারে রোড শো, মিছিল বন্ধ করার নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের]

বিষয়টি চাউর হতেই পুলিশের তরফে দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে যায়। পরে পশ্চিম ত্রিপুরা জেলাশাসক শৈলেশ কুমার যাদব এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, ইতিমধ্যেই এই ৩০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী ত্রিপুরা ছেড়ে চলে গিয়েছেন। তাঁদের প্রত্যেকের ঠিকানায় সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশের কাছে জানানো হয়েছে। জেলাশাসক শৈলেশ কুমার যাদব জানিয়েছেন, তাদের প্রত্যেকের মোবাইল ট্র্যাকিং করেই জানা গিয়েছে, তাঁরা রাজ্য ছেড়ে নিজ নিজ রাজ্যের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। কীভাবে ৩০ জন রোগী কোভিড কেয়ার সেন্টার থেকে একসাথে পালিয়ে গেলেন, তা নিয়েই দেখা দিয়েছে প্রশ্ন চিহ্ন।

[আরও পড়ুন: করোনা সংকটে অক্সিজেন সরবরাহ মসৃণ করতে সংস্থাগুলিকে কয়েকদফা দাওয়াই প্রধানমন্ত্রীর]

Advertisement
Next