Coronavirus: বেড়েই চলেছে করোনার চোখরাঙানি, দেশের দৈনিক আক্রান্ত পেরল ১৭ হাজার

09:42 AM Jun 24, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশে করোনার চতুর্থ ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কাই কি সত্যি হতে চলেছে? ক্রমবর্ধমান দৈনিক সংক্রমণের হার অন্তত সেদিকেই ইঙ্গিত করছে। দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাগাতার বেড়েই চলেছে। একদিন আগে যেটা ছিল ১৩ হাজার সেটাই শুক্রবার পেরিয়ে গিয়েছে ১৭ হাজার। এর মধ্যে আবার তৎপরতা শুরু হয়েছে কেন্দ্রের। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য স্বাস্থ্য মন্ত্রকের আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই তৎপরতা চতুর্থ ঢেউ নিয়ে আশঙ্কা আরও বাড়াচ্ছে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

শুক্রবার স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ৩৩৬ জন। যা গতকালের থেকে সামান্য হলেও বেশি। এর মধ্যে শুধু মহারাষ্ট্রেই আক্রান্ত ৫ হাজারের বেশি। কেরলের অবস্থাও তথৈবচ। রাজধানী দিল্লির অবস্থাও বেশ উদ্বেগের। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে পজিটিভিটি রেটও।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: আরও একা হচ্ছেন উদ্ধব! শিণ্ডে শিবিরে ৫০ বিধায়ক, যোগ দিচ্ছেন সাংসদরাও]

বর্তমানে দেশে করোনার অ্যাকটিভ কেস ৮৮ হাজার ২৮৪ জন। যা গতকালের থেকে ৪ হাজার ২৯৪ জন বেশি। দেশে অ্যাকটিভ কেসের ০.২০ শতাংশে পৌঁছে গিয়েছে। রিপোর্ট বলছে, একদিনে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৩ জন। এই সংখ্যাটা আগের দিনের থেকে খানিকটা কম। দেশে এখনও পর্যন্ত কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ লক্ষ ২৪ হাজার ৯৫৪ জন। করোনার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যার পাশাপাশি সুস্থতার হারও চিন্তাজনক। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত দেশে ৪ কোটি ২৭ লক্ষ ৪৯ হাজার ৫৬ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। যার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ১৩ হাজার ২৯ জন। সুস্থতার হার কমে দাঁড়িয়েছে ৯৮.৫৯ শতাংশ।

[আরও পড়ুন: সুখবর! খুলছে আলোচনার পথ, মাসের শেষে ব্যাংক ধর্মঘট প্রত্যাহার করল কর্মচারী সংগঠন]

নতুন করে সংক্রমণের গতি নিয়ন্ত্রণে ফের টেস্টিংয়ে জোর দিতে বলছে কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীও বৈঠকে সেকথাই বলেছেন। তাঁর বক্তব্য, যেসব জেলায় সংক্রমণের হার বেশি সেসব জেলা ধরে ধরে পরীক্ষা বাড়াতে হবে।

Advertisement
Next