উৎসবের মরশুমে ফের সামান্য চিন্তা করোনা গ্রাফে, দেশে বেশ খানিকটা বাড়ল দৈনিক আক্রান্ত

10:13 AM Sep 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উৎসবের মরশুমে ফের সামান্য হলেও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা। পরপর দুদিন দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যাটা ঊর্ধ্বমুখী। বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। পুরোদমে পুজো শুরু হলে এই সংখ্যাটা আরও বেশি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এখনও দেশের পজিটিভিটি রেট ১.৩৫ শতাংশের কাছাকাছি।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

রবিবার স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ২৭২ জন। গতকালও সংখ্যাটা ছিল ৩ হাজারের সামান্য বেশি। সংক্রমণ বাড়লেও গত ২৪ ঘণ্টায় কমেছে অ্যাকটিভ কেস। দেশের সক্রিয় রোগী বর্তমানে ৪০ হাজার ৭৫০ জন। আগের দিনের থেকে প্রায় শ’দুয়েক কমেছে এই অ্যাকটিভ কেস। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, ভারতে একদিনে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ২৭ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ লক্ষ ২৮ হাজার ৬১১ জন।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: রান্নার গ্যাসের কালোবাজারি রুখতে বড়সড় পদক্ষেপ, সিলিন্ডার কেনার সীমা বেঁধে দিল কেন্দ্র]

মারণ ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে বাড়ছে সুস্থতার হারও। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত দেশে ৪ কোটি ৪০ লক্ষ ১৩ হাজার ৯৯৯ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। বর্তমানে সুস্থতার হার ৯৮.৭২ শতাংশ। অর্থাৎ সার্বিকভাবে দেশের পরিসংখ্যানে স্বস্তি মিলেছে। কোনও রাজ্যেই আর সেভাবে প্রকোপ দেখাতে পারছে না এই মারণ ভাইরাস। আপাতত পজিটিভিটি রেট ১.৩৫ শতাংশ। তুলনায় ডেঙ্গু কয়েকটি রাজ্যে উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ভোল বদলে নিষিদ্ধ সিমিই আজকের PFI? স্পষ্ট হচ্ছে সংগঠনের সদস্যদের সঙ্গে জেএমবি-আইএস যোগ!]

সংক্রমণের গতি কমলেও টিকাকরণের গতির সঙ্গে আপস করতে চাইছে না সরকার। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য জানাচ্ছে, দেশে এখনও পর্যন্ত করোনার টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে ২১৮ কোটি ১৭ লক্ষের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টাতেই টিকা পেয়েছেন প্রায় ২১ লক্ষ ৬৩ হাজার মানুষ। টিকাকরণের পাশাপাশি করোনা রোগী চিহ্নিত করতে জোর দেওয়া হচ্ছে টেস্টিংয়েও। গতকাল দেশে ৩ লক্ষ ১৬ হাজার ৯১৬ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

Advertisement
Next