Advertisement

৭১ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন দেশের অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা, বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ

10:31 AM Jun 17, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশে করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। অন্তত পরিসংখ্যান সেকথাই বলছে। গত ২-৩ সপ্তাহ ধরে লাগাতার দৈনিক সংক্রমণ কমতে থাকায় করোনার অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা এখন অনেকটাই কমের দিকে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আঘাত হানার পর একটা সময় স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছিল। কিন্তু ক্রমাগত সচেতনতার প্রচার, কড়া বিধি নিষেধ এবং টিকাকরণের ফলে তা আবার ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বৃহস্পতিবার দেশের অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা নেমে এসেছে ৮ লক্ষ ২৬ হাজারের ঘরে। যা কিনা গত ৭১ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন।

Advertisement

বৃহস্পতিবার সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৬৭ হাজার ২০৮ জন করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন। যা গতকালকের থেকে সামান্য বেড়েছে। ফলে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৯৭ লক্ষ ৩১৩ জন। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, আপাতত মৃতের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৮১ হাজার ৯০৩ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৩৩০ জনের। দেশের দৈনিক সংক্রমণের হার অনেকদিন ধরেই নিম্নমুখী। তবে, স্বাস্থ্যমন্ত্রককে উদ্বেগে রাখছিল মৃত্যুর পরিসংখ্যান। এবার মৃতের সংখ্যাতেও ক্রমশ স্বস্তি ফিরছে।

[আরও পড়ুন: দমকলের ২২টি ইঞ্জিনের চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে দিল্লি এইমসের আগুন, এড়ানো গেল প্রাণহানি]

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের জন্য বড় স্বস্তির জায়গা হল অ্যাকটিভ কেস। এদিন নতুন করে অ্যাকটিভ কেস কমেছে ৪০ হাজারেরও বেশি। যার ফলে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৮ লক্ষ ২৬ হাজার ৭৪০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ১ লক্ষ ৩ হাজার ৫৭০ জন। ইতিমধ্যেই ভারতে ২৬ কোটি ৫৫ লক্ষ ১৯ হাজার ২৫১ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১৯ লক্ষের বেশি মানুষের।

Advertisement
Next