COVID-19 Update: দেশে করোনা সংক্রমণ সামান্য নিম্নমুখী, উদ্বেগ বাড়াচ্ছে মৃত্যুর উচ্চ হার

10:15 AM Jan 17, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নতুন বছরের শুরু থেকেই করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) তৃতীয় ধাক্কায় টালমাটাল হয়ে উঠেছিল দেশের পরিস্থিতি। বেড়েই চলছিল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। তবে সপ্তাহের প্রথম দিন সেই ঊর্ধ্বমুখী গ্রাফে সামান্য পতন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে কোভিড (COVID-19) পজিটিভ ২ লক্ষ ৫৮ হাজার ৮৯ জন। তবে উদ্বেগ বাড়িয়েছে মৃতের সংখ্যা। একদিনে দেশে করোনার বলি ৩৮৫ জন, রবিবারও যা ছিল ৩১৪। অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় লাফিয়ে বেড়েছে মৃত্যুহার।

Advertisement

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, একদিনে করোনার কবল থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৭৪০ জন। পজিটিভিটি রেট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯.৬৫ শতাংশ। হু হু করে বেড়েছে অ্য়াকটিভ রোগীর সংখ্যাও। সাম্প্রতিকতম তথ্য অনুযায়ী, দেশে অ্যাকটিভ কেস ১৬,৫৬,৩৪১। রবিবারও যা ছিল সাড়ে ১৫ লক্ষের সামান্য বেশি। এরে মধ্যে নয়া ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন (Omicron)আক্রান্তের সংখ্যাই পেরিয়ে গিয়েছে ৮ হাজার। এই মুহূর্তে তা ৮ হাজার ২৯, গত ২৪ ঘণ্টায় ৬ শতাংশেরও বেশি। দৈনিক সংক্রমণের প্রায় ৫০ শতাংশই ওমিক্রন বলে জানাচ্ছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৩,১৩,১৪৪, যার মধ্যে ১৯.৬৫ শতাংশ রিপোর্টই পজিটিভ। এই পরীক্ষায় আরও জোর দেওয়া হচ্ছে। 

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: গোমাংস কাটা ঘিরে গ্রামবাসী-বিএসএফ খণ্ডযুদ্ধে উত্তপ্ত ত্রিপুরা, আহত দু’পক্ষের অন্তত চার]

দেশের যে কয়েকটি রাজ্যে কোভিড সংক্রমণ উদ্বেগজনক, তার মধ্যে অন্যতম মহারাষ্ট্র, দিল্লি।মুম্বইয়ে সংক্রমণের বাড়বাড়ন্তের জেরে বিয়ের রেজিস্ট্রেশন আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।  এছাড়া ভোটমুখী উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাবেও বাড়ছে সংক্রমণ। বাংলার পরিস্থিতি নিয়েও উদ্বিগ্ন কেন্দ্র। বিভিন্ন রাজ্যে কড় কোভিডবিধি জারি থাকলেও সংক্রমণে বাগে আনা রীতিমত চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। যদিও ভোটমুখী ৫ রাজ্যে করোনার বাড়বাড়ন্ত এড়াতে সমস্ত সভা, মিছিল আপাতত স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।

[আরও পড়ুন: Goa Election 2022: ভোটের বাদ্যি গোয়ায়, আজ অভিষেকের উপস্থিতিতেই তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার সম্ভাবনা]

মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুঝতে পারে একমাত্র ভ্যাকসিন। কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠকগুলিতে বারবার  এমনই বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি (PM Modi)। বারবার জোর দিয়েছেন টিকাকরণে। এ বছরের গোড়া থেকেই ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের টিকাকরণের পাশাপাশি শুরু হয়েছে ভ্যাকসিনের বুস্টার ডোজ দেওয়াও। প্রথম ধাপে কো-মর্বিডিটি যুক্ত বয়স্ক রোগী এবং প্রথম সারির করোনা যোদ্ধারাই আপাতত এই টিকা পাচ্ছেন। পরে তা ধীরে ধীরে জনসাধারণের জন্য দেওয়া হতে পারে।  

Advertisement
Next