মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সরব হওয়ার ‘শাস্তি’! বাদল অধিবেশনে সাসপেন্ড ৪ কংগ্রেস সাংসদ

05:25 PM Jul 25, 2022 |
Advertisement

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: প্ল্যাকার্ড হাতে মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সরব হওয়ার শাস্তি! লোকসভার চার কংগ্রেস সাংসদকে সাসপেন্ড করলেন স্পিকার ওম বিড়লা (Om Birla)। চলতি বাদল অধিবেশনে আর অংশ নিতে পারবেন না তাঁরা। সোমবার প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ শুরু করতেই কংগ্রেস সাংসদদের সতর্ক করেছিলেন স্পিকার (Lok Sabha Speaker)। কিন্তু তাতে কর্ণপাত না করায় শেষপর্যন্ত তাঁদের সাসপেন্ড করেন তিনি। উল্লেখ্য, এবার সংসদ এবং সংসদ চত্বরে প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ দেখানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার।

Advertisement

চার কংগ্রেস সাংসদ (Congress MP) হলেন মানিকম ঠাকুর, যথিমানি, রম্যা হরিদাস এবং টিএন প্রথাপন। জানা গিয়েছে, এদিন অধিবেশন শুরু হতেই মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে প্ল্যাকার্ড নিয়ে সরব হন কংগ্রেস সাংসদরা। প্রথমে তাঁদের সতর্ক করেন স্পিকার। ওম বিড়লা বলেন, “আলোচনার জন্য আমি তৈরি। আমি চাই আলোচনা হোক। দুপুর ৩টে থেকে আলোচনা হবে। এটা আমার দুর্বলতা ভাববেন না। কিন্তু প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে চাইলে সংসদের বাইরে যান।”

[আরও পড়ুন: আদালত অবমাননা করেছেন শুভেন্দু! কড়া ব্যবস্থার দাবি কলকাতা হাই কোর্টের আইনজীবীদের]

স্পিকারের নির্দেশের পরই চার সাংসদ গান্ধীমূর্তির পাদদেশে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান। সাসপেনশন সম্পর্কে কংগ্রেসের তরফে বলা হয়েছে, “মানুষের কথা বলছিলেন আমাদের সাংসদরা। তাঁদের কণ্ঠরোধ করল সরকার।”

Advertising
Advertising

এদিন কংগ্রেস বিধায়করা হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে সংসদে প্রবেশের পরই আপত্তি জানিয়েছিলেন সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী। বিষয়টি তিনি স্পিকারের নজরে আনেন। তারপরই তৎপর হয় ওম বিড়লা। লোকসভার স্পিকার বলেন, “দেশের মানুষ চায় সংসদ চলুক। কিন্তু এটা এভাবে চলতে পারে না। সংসদের ভিতরে এমন পরিস্থিতি চলতে দেব না আমি।” প্রসঙ্গত, বাদল অধিবেশনে সংসদে চত্বরে প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ দেখানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। 

[আরও পড়ুন: আইনি জটিলতায় কোন ১৮ হাজার পদে নিয়োগ থমকে, দ্রুত রিপোর্ট তলব কলকাতা হাই কোর্টের]

Advertisement
Next