তাইওয়ান নিয়ে উত্তেজনার মাঝেই ভারতে নামল ফ্রান্সের রাফালে যুদ্ধবিমান

04:28 PM Aug 12, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাইওয়ান নিয়ে উত্তেজনার মাঝেই ভারতে নামল ফরাসি বায়ুসেনার তিনটি রাফালে যুদ্ধবিমান। বুধবার তামিলনাডুর সুলুর বায়ুসেনা ঘাঁটিতে নামে ফ্রান্সের অত্যাধুনিক ফাইটার জেটগুলি। ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে সামরিক মহড়া চালাতে যাওয়ার পথে ভারতে সাময়িক বিরতি নেয় রাফালেগুলি বলে জানিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে ভারতীয় বায়ুসেনা জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ায় ‘এক্সারসাইজ পিচ ব্ল্যাক-২০২২’ শীর্ষক সামরিক মহড়ায় অংশ নিতে যাচ্ছে ফরাসি রাফালে জেটগুলি। মাঝপথে ১০ ও ১১ আগস্ট প্রযুক্তিগত প্রয়োজনে ভারতে ছিল বিমানগুলি। বলে রাখা ভাল, ২০১৮ সালে সামরিক সহযোগিতা মজবুত করতে নয়াদিল্লি ও প্যারিসের মধ্যে ‘লজিস্টিক সাপোর্ট’ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তির শর্ত মোতাবেক প্রয়োজনে একে অপরের সামরিক ঘাঁটি ব্যবহার করতে পারবে। সেই চুক্তি লাগু করেই ফরাসি বিমানবাহিনীর সাহায্যে সুলুর বায়ুসেনা ঘাঁটির দরজা খুলে দেয় ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স। এই বিষয়ে এক বিবৃতি জারি করে ফ্রান্স জানিয়েছে, ভারতীয় বায়ুসেনার সাহায্য এটা স্পষ্ট করে দেয় যে দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক বিশ্বাস ও সহযোগিতার সম্পর্ক কতটা মজবুত।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ‘হর ঘর তেরঙ্গা’য় ডাক বিভাগের পোয়াবারো, ১০ দিনে বিক্রি ১ কোটিরও বেশি পতাকা]

তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, আগস্টের ১০ থেকে ১৮ সেপ্টেম্বর ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে সামরিক মহড়া চালাবে ফরাসি বায়ুসেনা। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত এই মহড়ায় যোগ দিতে ফরাসি বিমানঘাঁটি থেকে প্রায় ১৬ হাজার ৬০০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে হয়েছে রাফালেগুলিকে। ফলে প্রযুক্তিগত প্রয়োজনেই ভারতের বায়ুসেনা ঘাঁটিতে নামে রাফালে বিমানগুলি। একইসঙ্গে, তাইওয়ান (Taiwan) নিয়ে উত্তেজনার আবহে এটা চিনকে বড় ইঙ্গিত বলে মণে করছেন বিশ্লেষকরা।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ভারত ও ফ্রান্সের মধ্যে প্রায় ৫৯ হাজার কোটি টাকার চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। যেখানে ৩৬টি রাফালে (Rafale) যুদ্ধবিমান কেনার বিষয় ঠিক হয়। ফলে প্রায় দু’দশক পর নতুন কোনও অত্যাধুনিক বিদেশি যুদ্ধবিমান হাতে পায় ভারতীয় বায়ুসেনা। যুদ্ধে রাফালে বিমানকে গেম চেঞ্জার বলে মনে করছে বায়ুসেনা। ইতিমধ্যেই লাদাখের প্রতিকুল আবহাওয়ায় মহড়া দিয়েছে এই বিমান। বিমানটি দশ টন মাল বহন করতে সক্ষম। মাটি থেকে সমুদ্র বা আকাশের কোনও লক্ষ্যবস্তুকে আঘাত হানার ক্ষেত্রে এই বিমানের জুড়ি মেলা ভার। চতুর্থ প্রজন্মের ‘মিডিয়াম মাল্টি রোল কমব্যাট এয়ারক্র্যাফট’ রাফালে রয়েছে ‘ম্যাটিওর’ বিয়ন্ড ভিস্যুয়াল রেঞ্জ এয়ার-টু-এয়ার মিসাইল, ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ‘স্কাল্প’ এবং ‘হ্যামার’ (হাইলি অ্যাজাইল অ্যান্ড ম্যানুভারেবল মিউনিশন এক্সটেন্ডেড রেঞ্জ) ক্ষেপণাস্ত্র। আকাশে উড়তে উড়তেই জ্বালানি ভরে নিতেও দক্ষ রাফালে।

[আরও পড়ুন: স্বাধীনতা দিবসের আগে কাশ্মীরে ফের জঙ্গি হানা, প্রাণ গেল পরিযায়ী শ্রমিকের]

Advertisement
Next