ভোটের আগে খয়রাতির রাজনীতিতে আর্থিক সমস্যায় পড়ছে দেশ, মত প্রধান বিচারপতির

07:53 PM Aug 03, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনের আগে ভোটারদের বিনামূল্যে নানা সুবিধা দেওয়ার ঘোষণা করে প্রত্যেক রাজনৈতিক দল। কিন্তু সেই সিদ্ধান্তের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে দেশের অর্থনীতি, এমনটাই জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। সেই সঙ্গে শীর্ষ আদালতের পর্যবেক্ষণ, এই বিষয়টি বিশদে বিবেচনা করার জন্য একটি কমিটি গঠন করা দরকার। ভারতের প্রধান বিচারপতি এন ভি রামানা (NV Ramana) বলেছেন, বিনামূল্যে সুবিধা প্রদানের কথা বলে লাভবান হয় প্রত্যেক রাজনৈতিক দলই।

Advertisement

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে একটি মামলা দায়ের করে বলা হয়েছিল, নির্বাচনের আগে ভোটারদের সমর্থন পেতে বিনামূল্যে পরিষেবা দেওয়ার কথা ঘোষণা করে রাজনৈতিক দলগুলি। তার ফলে প্রভাবিত হন ভোটাররা। পরে সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে গিয়ে আর্থিক বিপর্যয় নেমে আসে। কিন্তু এই বিষয়ে সরকার কিছু করতে পারে না। নির্বাচন কমিশনকেই (Election Commission) এই ব্যাপারে পদক্ষেপ করতে হবে।

[আরও পড়ুন: উপরাষ্ট্রপতি ভোটে বিরোধী প্রার্থী আলভাকে সমর্থন AAP, JMM-এর, ধনকড়ের পাশে মায়াবতী]

সরকারের এই বক্তব্যের পরে রামানা বলেছেন, “ভারতের সকল করদাতা মনে করেন, উন্নয়নমূলক কাজে ব্যয় করার জন্য তাঁরা সরকারকে কর দেন না। কিন্তু তাঁদের মতামত প্রকাশ করা এবং আলোচনা করার জন্য একটি ফোরাম তৈরি করা প্রয়োজন। মানুষকে বিনামূল্যে সুবিধা দেওয়ার কথা বলে আসলে লাভবান হয় রাজনৈতিক দলগুলির।” তবে এক্ষুণি এই মামলায় কোনও রায় দেওয়া হয়নি শীর্ষ আদালতের তরফে।

Advertising
Advertising

সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, রিজার্ভ ব্যাংক, নীতি আয়োগ, অর্থ কমিশন ছাড়াও সরকার এবং বিরোধী দলগুলিকে নিয়ে কমিটি গঠন করতে হবে। তারাই এই বিষয়টি খতিয়ে দেখবে। আদালতে উপস্থিত প্রবীণ আইনজীবী এবং কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বলকেও পরামর্শ দিতে অনুরোধ করেছেন প্রধান বিচারপতি। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই উত্তরপ্রদেশে গিয়ে বিনামূল্যে সুবিধা দেওয়ার বিষয়টির তীব্র সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের রায় মোদির সেই বক্তব্যেকেই সমর্থন করছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

[আরও পড়ুন: বিধায়কদের গাড়িতে টাকা উদ্ধারের তদন্ত: দিল্লির পর এবার অসমে বাধা বাংলার CID দলকে]

Advertisement
Next