গুজরাট দাঙ্গায় মোদিকে ফাঁসিতে ঝোলানোর ছক ছিল তিস্তার! বিস্ফোরক চার্জশিট সিটের

08:28 PM Sep 21, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোধরা পরবর্তী দাঙ্গায় (Gujarat Riot 2022)  নরেন্দ্র মোদিকে ফাঁসিতে ঝোলানোর ছক কষেছিলেন তিস্তা শেতলবাদ (Teesta Setalvad)। সঙ্গী ছিলেন গুজরাটের তৎকালীন ডিজিপি আর বি শ্রীকুমার এবং প্রাক্তন আইপিএস আধিকারিক সঞ্জীব ভাট। বুধবার জমা করা গুজরাট পুলিশের সিটের (SIT) চার্জসিটে এমনই বিস্ফোরক দাবি করা হয়েছে। বলা হয়েছে, গুজরাটের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী মোদির বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য প্রচার এবং তাঁকে দোষী প্রমাণ করার ছক কষেছিলেন অভিযুক্তরা।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সিটের এই চার্জশিট প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ২০০২ সালের গোধরা পরবর্তী দাঙ্গায় মোদির (Narendra Modi) বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। যাতে আদালতে বিচারে তাঁর মৃত্যুদণ্ড হয়। চার্জশিটে তিন অভিযুক্তর বিরুদ্ধে একাধিক ধারা যুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৬৮ ধারা, ১৯৪ ধারা, ২১৮ ধারা।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: রাজনৈতিক স্বার্থে ইতিহাস ‘বিকৃতি’র অভিযোগ, নাম না করে ফের কেন্দ্রকে খোঁচা মুখ্যমন্ত্রীর]

২০০২ সালের গুজরাট দাঙ্গায় ক্ষতিগ্রস্তদের ভুয়ো সাক্ষ্য উপস্থাপন করার অভিযোগে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। সেই মামলায় শুক্রবার তাঁর জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে শীর্ষ আদালত। তবে তদন্তে পূর্ণ সহযোগিতা করতে হবে, এই শর্ত দেওয়া হয়েছে তিস্তাকে।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের সঙ্গে তিস্তাকে আরও বলা হয়েছে, আদালতের কাছে পাসপোর্ট জমা রাখতে হবে তাঁকে। তদন্তকারী অফিসারদের সঙ্গে তাঁকে সহযোগিতা করতে হবে, এই আদেশও দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। কিন্তু শুক্রবার শীর্ষ আদালতের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, তিস্তাকে সম্পূর্ণরূপে জামিনে মুক্ত করা যায় কিনা, সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে গুজরাট হাই কোর্ট। তিস্তার মামলা সংক্রান্ত কোনও ক্ষেত্রে সুপ্রিম কোর্ট হস্তক্ষেপ করবে না। এমনকি শীর্ষ আদালতের কোনও নির্দেশেরও কোনও প্রভাব থাকবে না গুজরাট আদালতের তদন্তে। এরমাঝেই তাঁর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক চার্জশিট জমা করল স্পেশ্যাল ইনভেস্টিগেশন টিম বা সিট। 

[আরও পড়ুন: ফের খারিজ জামিনের আবেদন, এবার পুজোয় জেলেই থাকতে হবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে]

Advertisement
Next