জুবেইরকে জেল হেফাজত হাথরস আদালতের, ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ সাংবাদিক

05:12 PM Jul 14, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্ট জামিন মঞ্জুর করেছে। তবু জেল থেকে বেরতে পারছেন না মহম্মদ জুবেইর (Mohammad Zubair)। বৃহস্পতিবার হাথরসের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট ফের ১৪ দিনের জেল হেফজতের নির্দেশ দিয়েছে জুবেইরকে। হাথরস আদালতের এই রায়ের পরেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন জুবেইর। উত্তরপ্রদেশে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া ছ’ টি অভিযোগ খারিজ করে দেওয়ার আবেদন করেছেন তিনি। সেই সঙ্গে তাঁর বিরুদ্ধে গঠিত হওয়া সিটের সাংবিধানিক বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) আপিল করেছেন তিনি।

Advertisement

পাটিয়ালা হাই কোর্টে জুবেইরের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দেওয়া এবং বিদেশি অনুদান আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ রয়েছে। সেই মামলার শুনানি হয়েছে বৃহস্পতিবার। আদালত জানিয়েছে, শুক্রবার এই মামলায় রায় দেওয়া হবে। কিন্তু তার আগেই হাথরস আদালতের রায় মোতাবেক জেলে থাকতে হবে জুবেইরকে। শুনানির জন্য দিল্লি পুলিশের বিশেষ দল জুবেইরকে নিয়ে হাথরসে (Hathras) গিয়েছিল। শুনানির পরে ফের তিহার জেলে ফিরে গিয়েছেন জুবেইর।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: জোর করে নাবালিকার ডিম্বাণু নিয়ে বিক্রির অভিযোগ, শাস্তির মুখে তামিলনাড়ুর ৪ হাসপাতাল]

মোট ছয়টি মামলা দায়ের করা হয়েছে জুবেইরের বিরুদ্ধে। হাথরসের দু’টি মামলার পাশাপাশি সীতাপুর, লখিমপুর খেরি, গাজিয়াবাদ এবং মুজফ্ফরনগরে একটি করে মামলা দায়ের হয়েছে AltNews-এর সাংবাদিক মহম্মদ জুবেইরের বিরুদ্ধে। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার জুবেইরের জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। হিন্দুত্ববাদী নেতাদের ‘বিদ্বেষী’ বলে অভিহিত করেছেন জুবেইর, এই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল তাঁর বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত জামিন দেওয়া হয়েছিল জুবেইরকে।

উত্তরপ্রদেশে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলাগুলি খারিজ করার আবেদন করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছেন মহম্মদ জুবেইর। সংশ্লিষ্ট মামলার তদন্ত করতে বিশেষ তদন্তকারী দল গঠন করা হয়েছে। কিন্তু সেই সিট গঠনের প্রক্রিয়াকে অসাংবিধানিক বলে দাবি করেছেন জুবেইর। সিট গঠনের প্রক্রিয়াতেও শীর্ষ আদালতের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: মসনদে বসেই বিজেপির নীতি অনুসরণ শিণ্ডের, এক ধাক্কায় অনেকটা কমালেন পেট্রল-ডিজেলের দাম]

Advertisement
Next