মমতার উপর কী জাদু করেছেন? ধনকড়কে প্রশ্ন গেহলটের, খোঁচার জবাব দিল তৃণমূল

12:07 PM Sep 22, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উপলক্ষ ছিল উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনকড়কে সমানজ্ঞাপন অনুষ্ঠান। তাতে উপস্থিত ছিলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট, বিরোধী নেত্রী বসুন্ধরা রাজে  (Vasundhara Raje) এবং অন্যান্য কংগ্রেস এবং বিজেপি নেতারা। বাংলা বা তৃণমূলের সঙ্গে সেই বৈঠকের দূর দূর তক কোনও সম্পর্ক ছিল না। কিন্তু জগদীপ ধনকড় যেখানে উপস্থিত, সেখানে বাংলার প্রসঙ্গ না ওঠাটাই বোধ হয় অস্বাভাবিক। সুতরাং, সেই প্রসঙ্গ উঠল এবং তাতে বেশ অস্বস্তিতে ফেলা হল বাংলার শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসকে (TMC)।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

রাজস্থানের ওই অনুষ্ঠান থেকে সেরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা শীর্ষস্থানীয় কংগ্রেস (Congress) নেতা অশোক গেহলট ধনকড়কে প্রশ্ন করলেন, কোন জাদুতে তিনি মমতাকে ‘বশ’ করলেন? আসলে ধনকড় এরাজ্যের রাজ্যপাল থাকাকালীন মমতার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক তলানিতে নেমে গিয়েছিল। তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা তাঁর বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনে ‘পদ্মপাল’ তকমাও সেঁটে দিয়েছিলেন। অথচ এ হেন তৃণমূল কংগ্রেস শেষপর্যন্ত উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থীকে ভোট দেয়নি। সরাসরি ধনকড়কে সমর্থন না করলেও ভোটদানে বিরত থাকে তৃণমূল। সেই প্রসঙ্গ তুলেই অশোক গেহলট (Ashok Gehlot) তৃণমূলকে খোঁচা দিয়ে ধনকড়কে প্রশ্ন করেন, “জাদুকর তো আমি, মমতার উপর আপনি কোন জাদু করলেন?”

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: রাহুলের ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’র হোর্ডিংয়ে সাভারকরের ছবি, অস্বস্তিতে কংগ্রেস]

উপরাষ্ট্রপতি ধনকড় অবশ্য সরাসরি এ প্রশ্নের জবাব দেননি। হেসে উঠে তিনি বলেন,”আমি রাজনীতির লোক নই। কী কারণে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, কীসের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সেসব আমার থেকে অশোক গেহলট, বসুন্ধরা রাজেরা ভাল জানবেন। বাংলার রাজ্যপাল থাকাকালীন আমিই বসুন্ধরাজির কাছে জানতে চাই, মমতার উপরে কীভাবে জাদু করা যায়?” এরপর উপরাষ্ট্রপতি ধনকড়ও মমতাকে খোঁচা দিয়ে বলেন,”আমি মমতার কাছে জানতে চেয়েছিলাম, আমি সংবিধানবিরোধী কোনও পদক্ষেপ করেছি কি না? তাঁর সম্মানহানি হয় এমন কোনও বক্তব্য কোথাও করেছি কিনা?”

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: গুজরাট দাঙ্গায় মোদিকে ফাঁসিতে ঝোলানোর ছক ছিল তিস্তার! বিস্ফোরক চার্জশিট সিটের]

উপরাষ্ট্রপতি এবং কংগ্রেস দুই শিবিরের কটাক্ষে ফুঁসে ওঠে তৃণমূল। সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়ের (Sukhendu Sekhar Roy) বক্তব্য,”মৃত্যুর পথে চলে যাওয়া কংগ্রেসকে কী ভাবে বাঁচানো যায় তা নিয়ে বরং ভাবা উচিত অশোক গেহলটের। অন্য দল কী করছে, সেসব না ভাবলেও চলবে।”

Advertisement
Next