অসমের ভয়াবহ বন্যায় ট্রেনেই আটকে ৩ হাজার যাত্রী, উদ্ধার করল বায়ুসেনার কপ্টার

04:37 PM May 17, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রবল বৃষ্টিতে নাজেহাল অসম (Assam)। প্রায় ২ লক্ষ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বন্যায়। কার্যত বিছিন্ন হয়ে পড়েছে ডিমা হাসাও জেলাটি। ধস নেমে রাস্তা ভেঙে যাওয়ায় যাতায়াতের পথ প্রায় বন্ধ। বন্যার (Assam Flood) কবলে পড়ে মৃত্যু হয়েছে ছয় জনের। এহেন পরিস্থিতিতে লুমদিং-বদরপুর অঞ্চলে আটকে পড়েছিল দু’টি ট্রেন। সেই ট্রেনে আটকে থাকা প্রায় তিন হাজার যাত্রীকে উদ্ধার করেছে ভারতীয় বায়ুসেনা (Indian Air Force)।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

উত্তর-পূর্ব রেলের এক মুখপাত্র বলেছেন, ”ভারতীয় বায়ুসেনার সহযোগিতায় আটকে থাকা যাত্রীদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। গত শনিবার থেকে ডিমা হাসাও (Dima Hassao) জেলায় ট্রেন দুটি আটকে পড়েছিল। ক্রমাগত বৃষ্টির কারণে উদ্ধারকাজ বেশ কয়েকবার বাধা পেয়েছে। তাই কপ্টারে করে যাত্রীদের নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।” তিনি আরও জানিয়েছেন, বন্যার কারণে ইতিমধ্যেই ১৮টি ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। আগামিদিনে আরও ১০ টি ট্রেন বাতিল করে দেওয়া হতে পারে।

[আরও পড়ুন: বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে কিচ্ছু পায়নি CBI, দাবি চিদম্বরের, আর কতবার? প্রশ্ন কার্তির]

ডিমা হাসাও জেলার হাফলং ( New Halflong Station) এলাকার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, প্রবল জলের তোড়ে হেলে পড়েছে নিউ হাফলং স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রেন। একই সঙ্গে দেখা যাচ্ছে, জলের ঢেউয়ে ভেসে যাচ্ছে রেললাইন।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

গত শনিবার থেকে টানা বৃষ্টি হচ্ছে অসমে। তার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রেল পরিষেবা। সেই প্রসঙ্গে রেলের মুখপাত্র জানিয়েছেন, “যাত্রীদের নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে। এরপরে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত রেললাইন মেরামতির কাজ শুরু করব। তবেই ফের স্বাভাবিক ভাবে রেল পরিষেবা শুরু করা যাবে।” জানা গিয়েছে, নিউ হাফলং স্টেশনটি শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সাতটি জেলায় ৫৫ টি ত্রাণ শিবির খোলা হয়েছে। প্রায় ৩৩ হাজার মানুষকে সেখানে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: জম্মু ও কাশ্মীরের পুনর্বিন্যাস ইস্যুতে নাক গলানোর চেষ্টা পাকিস্তানের, কড়া জবাব ভারতের

This browser does not support the video element.

Advertisement
Next