স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লায় একযোগে হামলা চালাতে পারে লস্কর এবং জইশ, সতর্কবার্তা আইবির

12:47 PM Aug 04, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশ জুড়ে ৭৫তম স্বাধীনতা দিবস (Independence Day) পালনের প্রস্তুতি চলছে। তার মধ্যেই দিল্লি পুলিশকে জঙ্গি হামলা নিয়ে সতর্ক করল ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো। আইবি-র তরফে জানানো হয়েছে, স্বাধীনতা দিবসের আগেই জঙ্গি হামলা চালাতে পারে লস্কর-ই-তইবা (Lashkar-E-Taiba), জইশ-ই-মহম্মদের (Jaish-E-Mohammad) মতো সংগঠনগুলি। লালকেল্লা সংলগ্ন এলাকায় নিরাপত্তা ব্য়বস্থায় আরও কড়াকড়ি করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দিল্লি পুলিশকে। সেই কথা মতোই লালকেল্লার নানা অংশে এক হাজারের বেশি সিসিটিভি ক্যামেরা লাগাচ্ছে দিল্লি পুলিশ।

Advertisement

আইবির (Intelligence Bureau) তরফে একটি দশ পাতার রিপোর্ট পেশ করে জানিয়েছে, জইশ, লস্কর বা অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনগুলি ১৫ আগস্টের আগেই হামলা করতে পারে। তাই লালকেল্লায় (Red Fort) প্রবেশের অনুমতি নিয়ে বিশেষ ভাবে সতর্ক থাকতে হবে পুলিশকে। পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই জঙ্গি হামলায় মদত দিচ্ছে বলে জানানো হয়েছে ওই রিপোর্টে। সেই সঙ্গে আরও বলা হয়েছে, বড় মাপের নেতাদের লক্ষ্য করে হামলা চালাতে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে জইশ এবং লস্কর জঙ্গিদের। প্রয়োজনীয় অস্ত্রশস্ত্রের জোগানও দিচ্ছে পাক সংস্থা, এমনটাই অনুমান কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের। শুধু দিল্লি নয়, বড়সড় হামলা হতে পারে কাশ্মীরেও।

[আরও পড়ুন: তৃণমূলের দুয়ারে প্রধানমন্ত্রীর ভাই, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলতে সুদীপের দ্বারস্থ প্রহ্লাদ মোদি]

কিছুদিন আগেই জাপানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবেকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল। সেই প্রসঙ্গও উল্লেখ করা হয়েছে রিপোর্টে। সেই সঙ্গে জয়পুর এবং অমরাবতীর ঘটনাবলির কথা উল্লেখ করে আইবি জানিয়েছে, সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের দিকে নজর রাখা দরকার। জানা গিয়েছে, আকাশপথেও হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা। তার জন্য চালকবিহীন বিমান বা প্যারাগ্লাইডার ব্যবহার করা হতে পারে। আইএসআইয়ের তৈরি করা জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-খালসার কাছে ইতিমধ্যেই আফগান ফাইটার জেট এসে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

Advertising
Advertising

লালকেল্লা ছাড়াও গোটা দিল্লিতেই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে দিল্লি পুলিশের (Delhi Police) তরফে। বিশেষত যেসব এলাকায় রোহিঙ্গা, আফগানিস্তান এবং সুদানের নাগরিকরা বসবাস করেন, সেখানে নজর রাখতে বলা হয়েছে। টিফিন বোমা জাতীয় বস্তু নিয়েও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। দিল্লি পুলিশের তরফে জানা গিয়েছে, শহরের নানা প্রান্তেই সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়ে গিয়েছে। এই ক্যামেরাগুলিতে ফেস ডিটেকশনের ব্যবস্থা রয়েছে, ফলে সন্দেহভাজনদের শনাক্ত করতে সুবিধা হবে। 

[আরও পড়ুন: কমনওয়েলথ গেমস: ইতিহাস গড়ে স্কোয়াশে ব্রোঞ্জ বাংলার সৌরভের, হাই জাম্পে প্রথম পদক তেজস্বীনের]

Advertisement
Next