COVID-19: দু’মাসে প্রথমবার ১০ হাজারের নিচে করোনার দৈনিক গ্রাফ, কমল অ্যাকটিভ কেসও

09:20 AM Aug 16, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধীরে ধীরে করোনার বিরুদ্ধে জয়ের পথে এগোচ্ছে ভারত। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যানে অন্তত সে ইঙ্গিতই মিলল। কারণ গত দু’মাসে প্রথমবার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা নামল ১০ হাজারের নিচে। স্বস্তি দিয়ে কমেছে অ্যাকটিভ কেসের হারও। তবে এখনও চিন্তায় রাখছে কয়েকটি রাজ্যের কোভিডের ছবিটা।

Advertisement

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন ৮,৮১৩ জন। গতকাল যে সংখ্যাটা ছিল ১৪ হাজারের বেশি। সংক্রমণের পাশাপাশি গত ২৪ ঘণ্টায় একলাফে অনেকটাই কমেছে অ্যাকটিভ কেসও। দেশের সক্রিয় রোগী বর্তমানে ১ লক্ষ ১১ হাজার ২৫২ জন। গোটা দেশে অ্য়াকটিভ কেসের হার কমে ০.২৫ শতাংশ। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, ভারতে একদিনে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ২৯ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ লক্ষ ২৭ হাজার ৯৮।

[আরও পড়ুন: AIFF-কে সাসপেন্ড করল ফিফা, সংকটে অনূর্ধ্ব-১৭ মেয়েদের বিশ্বকাপ]

দেশের বেশিরভাগ রাজ্যে সংক্রমণে লাগাম টানা সম্ভব হলেও এখনও চিন্তায় রাখছে রাজধানী দিল্লির করোনা গ্রাফ। একদিনে রাজধানীতে আক্রান্ত ১২০০ জনেরও বেশি। মহারাষ্ট্রের কোভিড গ্রাফও উদ্বেগজনক। কেরল, তামিলনাড়ু, কর্ণাটকের মতো রাজ্যগুলির করোনা সংক্রমণ অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বেশি। তার মধ্যেই আবার মাথাচাড়া দিয়েছে করোনার নয়া স্ট্রেন ওমিক্রন। যদিও সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান আদর পুনাওয়ালার দাবি, আগামী ছ’মাসের মধ্যে ওমিক্রনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ভ্যাকসিন তৈরি হয়ে যাবে।

Advertising
Advertising

এসবের মাঝে অবশ্য মারণ ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে শক্তি জোগাচ্ছেন করোনাজয়ীরাই। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত দেশে ৪ কোটি ৩৬ লক্ষ ৩৮ হাজার ৮৪৪ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। বর্তমানে সুস্থতার হার ৯৮.৫৬ শতাংশ। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য জানাচ্ছে, দেশে করোনার টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে ২০৮ কোটি ৩১ লক্ষের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টাতেই টিকা পেয়েছেন ৬ লক্ষ ১০ হাজার। জোরকদমে চলছে ১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে বুস্টার ডোজ দেওয়ার অভিযানও। টিকাকরণের পাশাপাশি করোনা রোগী চিহ্নিত করতে জোর দেওয়া হচ্ছে টেস্টিংয়েও। গতকাল দেশে ২ লক্ষ ১২ হাজার ১২৯ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

Advertisement
Next