‘সবার জন্য আনা হোক জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন’, দাবি তুললেন আরএসএস প্রধান

12:00 PM Oct 05, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইনের পথে হাঁটা উচিত ভারতের। দশেরার সকালে এমনই মত প্রকাশ করলেন আরএসএস (RSS) প্রধান মোহন ভাগবত (Mohan Bhagwat)। সেই সঙ্গে এও জানালেন, এই পদক্ষেপ না করলে দেশ ‘ধর্মীয় কারণে ভারসাম্যহীনতা’ ও ‘জোর করে ধর্মান্তকরণে’র মতো সমস্যায় ভুগবে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

দশেরার এক শোভাযাত্রায় যোগ দিয়েছিলেন আরএসএস সুপ্রিমো। সেখানেই তাঁকে এমন কথা বলতে শোনা গিয়েছে। ঠিক কী বলেছেন মোহন ভাগবত? তাঁর কথায়, ”জনসংখ্যার ভারসাম্যহীনতা ভৌগলিক সীমানা পরিবর্তনের দিকে নিয়ে যায়। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ ও ধর্মভিত্তিক জনসংখ্যার ভারসাম্য এমন এক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যাকে আর উপেক্ষা করা যাবে না। আর সেই কারণেই একটি সামগ্রিক জনসংখ্যা নীতি আনা উচিত। এবং সকলের জন্য়ই এটা সমানভাবে প্রযোজ্য হওয়া উচিত।”

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অ্যাম্বুল্যান্সে ধাক্কা গাড়ির, মুম্বইয়ে প্রাণ গেল অন্তত ৫ জনের]

আরএসএস ও তার সঙ্গী দলগুলির আগে তোলা দাবি পুনর্ব্যক্ত করে আরএসএস প্রধান বলেছেন, ”জন্মহার একটি কারণ। পাশাপাশি বলপ্রয়োগ, প্রলোভন বা লোভ দেখিয়ে ধর্মান্তকরণ এবং অনুপ্রবেশও বড় কারণ।”
স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে, বিজেপি কি আরএসএসের প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে এই ধরনের আইন প্রণয়নের দিকে সত্য়িই হাঁটবে? সেই সম্ভাবনা এখনই নেই বলেই ধারণা ওয়াকিবহাল মহলের। কেননা এর আগেও বারবার এই আইনের কথা বলে এসেছে আরএসএস। কিন্তু তাতে কান দেয়নি বিজেপি সরকার।

গত এপ্রিলে এই ধরনের আইনের দাবি তুলেছিলেন রাজ্যসভার সদস্য রাকেশ সিনহা। সেই বিলের উপর আলোচনার সময় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য বলেন, পরিবার পরিকল্পনা নিয়ে সচেতনতা ও স্বাস্থ্য পরিষেবার উন্নতির কারণে জনসংখ্যায় একটা স্থিতিশীলতা ইতিমধ্যেই এসেছে। তিনি জানান, প্রজনন হার কমতে কমতে ২ শতাংশে এসে পৌঁছেছে। যা বুঝিয়ে দিচ্ছে কেন্দ্রের পরিবার পরিকল্পনা মিশন সঠিক পথেই এগচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে ফের আরএসএসের মুখে এই ধরনের আইনের কথা শোনা গেলেও বিজেপি এখনই নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: সংসদীয় কমিটি নিয়ে বিজেপির রাজনীতি, সুদীপকে সরিয়ে চেয়ারম‌্যান পদে বসানো হল লকেটকে]

Advertisement
Next