COVID-19: দেশে কমছে করোনার অ্যাকটিভ কেস, স্বাধীনতা দিবসে রাজ্যগুলিকে সতর্ক থাকার নির্দেশ কেন্দ্রের

09:52 AM Aug 13, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশজুড়ে অব্যাহত করোনার চোখ রাঙানি। একদিন সংক্রমণ খানিকটা নিয়ন্ত্রণে মনে হলেও পরমুহূর্তেই টেস্টিং বৃদ্ধি পেলে বাড়ছে সংক্রমণের হারও। গত কয়েকদিনের করোনা পরিসংখ্যানেই সেই ছবিটা স্পষ্ট। গত ২৪ ঘণ্টায় যেমন খানিকটা কমেছে সংক্রমণ। স্বস্তি দিচ্ছে নিম্নমুখী অ্যাকটিভ কেসও। তবে দিল্লি-সহ কয়েকটি রাজ্যের কোভিড গ্রাফ এখনও চিন্তায় রাখছে।

Advertisement

শনিবার স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন ১৫,৮১৫ জন। গতকাল যে সংখ্যাটা ছিল ১৬ হাজারের বেশি। সংক্রমণের পাশাপাশি গত ২৪ ঘণ্টায় খানিকটা কমেছে অ্যাকটিভ কেসও। দেশের সক্রিয় রোগী বর্তমানে ১ লক্ষ ১৯ হাজার ২৬৪ জন। গোটা দেশে অ্য়াকটিভ কেসের হার কমে ০.২৭ শতাংশ। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, ভারতে একদিনে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৬৮ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যা ৫ লক্ষ ২৬ হাজার ৯৯৬।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: স্বেচ্ছামৃত্যুর জন্য সুইজারল্যান্ড যেতে চান বন্ধু! আটকাতে আদালতের দ্বারস্থ মহিলা]

দেশের বেশিরভাগ রাজ্যে সংক্রমণে লাগাম টানা সম্ভব হলেও নতুন করে চিন্তায় ফেলছে রাজধানী দিল্লির করোনা গ্রাফ। একদিনে রাজধানীতে আক্রান্ত ২৩০০ জনেরও বেশি। মহারাষ্ট্রের কোভিড গ্রাফও উদ্বেগজনক। কেরল, তামিলনাড়ু, কর্ণাটকের মতো রাজ্যগুলির করোনা সংক্রমণ অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বেশি। এরই মধ্যে দেশজুড়ে ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস উদপাযপেনর তোড়জোড় চলছে। এই কর্মসূচির জন্য যাতে করোনা লাগামছাড়া না হয়ে পড়ে, তার জন্য নতুন করে রাজ্যগুলিকে সতর্ক করেছে কেন্দ্র।

এসবের মাঝে মারণ ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে শক্তি জোগাচ্ছেন করোনাজয়ীরাই। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত দেশে ৪ কোটি ৩৫ লক্ষ ৯৩ হাজার ১১২ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। যার মধ্যে একদিনে সুস্থ হয়েছেন ২০,০১৮ জন। সুস্থতার হার ৯৮.৫৪ শতাংশ। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য জানাচ্ছে, দেশে করোনার টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে ২০৭ কোটি ৭১ লক্ষের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টাতেই টিকা পেয়েছেন প্রায় ২৫ লক্ষ। জোরকদমে চলছে ১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে বুস্টার ডোজ দেওয়ার অভিযানও। টিকাকরণের পাশাপাশি করোনা রোগী চিহ্নিত করতে জোর দেওয়া হচ্ছে টেস্টিংয়েও। গতকাল দেশে ৩ লক্ষ ৬২ হাজার ৮০২ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রভাব ফেলবে না পার্থ-অনুব্রতর গ্রেপ্তারি, এখন ভোট হলে ৩৫টি লোকসভা কেন্দ্র তৃণমূলের]

Advertisement
Next