দেখুক চিন, স্বাধীনতা দিবসে প্যাংগং লেকে সগর্বে উড়ল তেরঙ্গা

08:25 AM Aug 15, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৭৬তম স্বাধীনতা দিবসে লাদাখে প্যাংগং লেকের পাশে সগর্বে উড়ল তেরঙ্গা। চিনের সঙ্গে সংঘাতের আবহে দেশ যে এক কদমও পিছু হটবে না সেই বার্তা দিয়ে ১৪ হাজার ফুট উচ্চতায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করলেন Indo-Tibetan Border Police-এর (ITBP) জওয়ানরা।

Advertisement

আজ সোমবার দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে স্বাধীনতা দিবস। করোনা সংকট কিছুটা কাটিয়ে উঠে ভারতের ইতিহাসের সবচেয়ে গর্বের দিনটিতে আনন্দ উদযাপনে উৎশাহের কোনও খামতি নেই এবার। আমজনতা থেকে সীমান্তে মোতায়েন জওয়ানরা সবাই বুক ফুলিয়ে মাথা উঁচু করে স্যালুট করেছেন তেরঙ্গাকে। বিশেষ করে প্যাংগং লেকের (Pangong Tso) পাশে পতাকা উড়িয়ে সম্প্রসারণবাদী চিনকে স্পষ্ট বার্তা দেওয়া হয়েছে। মাতৃভূমির রক্ষায় তাঁরা যে সদা তৎপর, এদিন প্যাংগং লেকের পশগয়ে সেই বার্তাই দিলেন আইটিবিপি’র জওয়ানরা।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: আজ ৭৬তম স্বাধীনতা দিবস, দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে অমৃত মহোৎসব]

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় হামলা চালায় চিনা ফৌজ। পালটা জবাব দেন ভারতীয় জওয়ানরাও। তারপর থেকেই সেখানে কার্যত যুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হয়। বলে রাখা ভাল, প্যাংগং লেক বরাবর ফিঙ্গার ১ থেকে ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত বরাবর টহল দিয়ে এসেছে ভারতীয় ফৌজ। তবে চিনের দাবি, ফিঙ্গার ৮ থেকে ফিঙ্গার ৪ পর্যন্ত তাদের এলাকা। ফলে সংঘাত বাড়ছে দুই বাহিনীর মধ্যে। সেনা সূত্রে খবর, গালওয়ানের পর থেকেই প্যাংগং লেকের পাশে প্রচুর সেনা মোতায়েন করেছে লালফৌজ।

প্রসঙ্গত, লাদাখ (Ladakh) সীমান্তে কিছুটা কেটেছে যুদ্ধের মেঘ। তবে লালফৌজের আগ্রাসনে দুই দেশের সম্পর্কে যে ফাটল ধরেছে, তা মেরামত করা সহজ নয়। এহেন পরিস্থিতিতে গত জুলাই মাসে সামরিক স্তরের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় ভারত ও চিনের মধ্যে। প্রায় ১২ ঘণ্টা ধরে সেনা কমান্ডারদের মধ্যে চলা বৈঠকে বিতর্কিত এলাকাগুলি থেকে ফৌজ সরাতে চিনকে চাপ দেয় ভারত। সূত্রের খবর, এবারের বৈঠকে পূর্ব লাদাখে হট স্প্রিং থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে চাপ দিয়েছে ভারত। বিশেষ করে, সংঘর্ষের কেন্দ্রবিন্দু পেট্রোল পয়েন্ট ১৫ থেকে লালফৌজকে পিছু হঠতে বলেছে নয়াদিল্লি।

[আরও পড়ুন: ‘দেশভাগের জন্য দায়ী নেহরু’, বিজেপির ভিডিও নিয়ে জোর বিতর্ক, পালটা দিল কংগ্রেস]

Advertisement
Next