বালিকাকে ধর্ষণ ও খুনে উত্তাল কাশ্মীর বিধানসভা, ওয়াকআউট বিরোধীদের

04:08 AM Jan 19, 2018 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  এক আদিবাসী বালিকাকে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় উত্তাল কাশ্মীর বিধানসভা। ঘটনার প্রতিবাদে অধিবেশন থেকে ওয়াকআউট করলেন ন্যাশনাল কনফারেন্স, কংগ্রেস-সহ বিরোধী দলের বিধায়ক। ঘটনার উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত ও সংশ্লিষ্ট পুলিশ আধিকারিকদের বরখাস্তের দাবি তুলেছেন বিরোধীরা। এদিকে বিধানসভায় আদিবাসী নাবালিকা খুন ও ধর্ষণের তদন্তে স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম বা সিট গঠন করার কথা ঘোষণা করেছে কাশ্মীর সরকার। বিশেষ তদন্তকারী দলের নেতৃত্বে থাকবেন মহকুমা পুলিশ আধিকারিকদের পদমর্যাদার পুলিশ কর্তা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[রায়ান কাণ্ডের ছায়া, তাড়াতাড়ি ছুটির জন্য ছাত্রকে কোপ ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর]

কয়েক দিন আগে কাশ্মীরের হীরানগরের জঙ্গল থেকে এক আদিবাসী বালিকার দেহ উদ্ধার করেছের পুলিশ। অভিযোগ, আট বছরের ওই বালিকাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, ঘটনার পর মৃতদেহটি রহস্যজনকভাবে উধাও হয়ে গিয়েছিল। শেষপর্যন্ত, হীরানগরের জঙ্গলের দেহ পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার বিধানসভায় বিষয়টি তোলেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের দুই বিধায়ক মিয়ান আলতাফ ও মুরারক গুল। তাঁদের অভিযোগ, ওই বালিকার মৃতদেহটি খুঁজে বের করতে কোনও উদ্যোগ নেয়নি কাশ্মীর পুলিশ। এই বিষয়ে সরকারের বিবৃতি দাবি করে অধিবেশন কক্ষে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের বিধায়করা। তাঁদের সুরে সুর মেলান কংগ্রেস বিধায়করাও। দলের বিধায়কদের বক্তব্য, আদিবাসী বালিকা ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার স্থানীয় বাসিন্দারা অত্যন্ত। জাতীয় সড়ক অবরোধও করেছিলেন তাঁরা। সরকার কী করছে? ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিধানসভায় রিপোর্ট পেশ করুক সরকার। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে জেলার ডেপুটি পুলিশ সুপার ও স্থানীয় থানার আধিকারিককে বরখাস্তের দাবিও ওঠে। একযোগে ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কংগ্রেস ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের বিধায়করাও।

Advertising
Advertising

[চূড়ান্ত সাফল্যের মুখ দেখল অগ্নি-৫, আতঙ্কে থরহরি কম্প চিন]

বিরোধীদের প্রবল চাপের মুখে বিধানসভায় কাশ্মীরের পরিষদীয় মন্ত্রী আব্দুল রেহমান ভেরি বলেন, গত ৮ জানুয়ারি ওই বালিকা নিখোঁজ হয়ে যায়। স্থানীয় হীরানগর থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন তার বাবা। মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ১৭ জানুয়ারি স্থানীয় জঙ্গলে ওই বালিকার মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছে। প্রতিবাদে একপ্রস্ত বিক্ষোভও দেখিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। দ্রুত তদন্তের জন্য বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিট গঠন করেছে সরকার। দোষী কঠোর শাস্তি পাবে। কিন্তু, মন্ত্রীর জবাব খুশি করতে পারেনি বিরোধীদের । নির্দিষ্ট সময়ে মধ্যে তদন্ত শেষ করার দাবিতে অধিবেশন থেকে ওয়াকআউট করেন কংগ্রেস ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের বিধায়করা। এদিকে, এই ঘটনার সঠিক তদন্ত ও দোষীদের শাস্তির আশ্বাস দিয়েছেন কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। তাঁর টুইট, ‘আদিবাসী সম্প্রদায়ের এক বালিকার মৃত্যুতে আমি ব্যথিত। দ্রুত তদন্ত শেষ করে দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে।’

 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[কামরায় পোকার উৎপাতে তটস্থ যাত্রীরা, রঙিন কোচেই সমাধান খুঁজছে রেল]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next