‘আমাদের বাঁচতে দিন’, প্রশাসনের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ কাশ্মীরি পণ্ডিতদের

02:22 PM Aug 17, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ সরকার। এই অভিযোগে ফের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখালেন কাশ্মীরি পণ্ডিতরা (Kashmiri Pandit)। মঙ্গলবার কাশ্মীরে বুদগাম নিরাপত্তার দাবিতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখান একদল কাশ্মীরি পণ্ডিত। তাঁদের দাবি, পুলিশ প্রশাসন তাঁদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ। বছরের পর বছর ধরে তাঁরা নিপীড়িত। এবার পরিস্থিতি সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

আসলে বেশ কিছুদিন ধরে কাশ্মীরে ফের শুরু হয়েছে ‘টার্গেট কিলিং’। জঙ্গিরা বেছে বেছে হয় কাশ্মীরি পণ্ডিতদের, নয় পরিযায়ী শ্রমিকদের টার্গেট করছে। গত কয়েক মাসে বেশ কয়েকজন কাশ্মীরি পণ্ডিতকে প্রাণও দিতে হয়েছে। মঙ্গলবারই সোপিয়ানের জঙ্গি হানায় সুনীল কুমার (Sunil Kumar) নামের এক কাশ্মীরি পণ্ডিতের মৃত্যু হয়েছে। তাঁর ভাই পিন্টু কুমার গুরুতর আহত হয়েছেন। যা কাশ্মীরের সংখ্যালঘু হিন্দুদের আতঙ্ক আরও বাড়াচ্ছে। পণ্ডিতদের অভিযোগ, সব জানা সত্ত্বেও পুলিশ প্রশাসন তাঁদের নিরাপত্তা দিতে পুরোপুরি ব্যর্থ।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: বিস্কুটের লোভ দেখিয়ে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ, খুন করে দেহ নর্দমায় ফেলল প্রৌঢ়]

ইতিমধ্যেই কাশ্মীরি পণ্ডিত সংঘর্ষ সমিতি সংঠনের সদস্যদের জানিয়ে দিয়েছে, যে যেভাবে পারেন জম্মু বা দিল্লির মতো নিরাপদ স্থানে চলে যান। কাশ্মীরি পণ্ডিত সংঘর্ষ সমিতির (KPSS) প্রধান সঞ্জয় টিক্কুর বক্তব্য, মঙ্গলবারের আক্রমণের পর স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে যে উপত্যকায় কোনও কাশ্মীরি হিন্দুকে বাঁচতে দেবে না জেহাদিরা। আমরা গত ৩২ বছর ধরে এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করে চলেছি। সরকার কাশ্মীরি পণ্ডিতদের নিরাপত্তা দিতে পুরোপুরি ব্যর্থ। আর কতদিন আমরা এই যন্ত্রণা সহ্য করব।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন:লাদাখ সীমান্তে সামরিক ক্ষমতা বাড়াল ভারতীয় সেনা, প্যাংগং হ্রদে ভাসল দেশীয় প্রযুক্তির ভেসেল]

বস্তুত, কাশ্মীরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা খর্ব হওয়ার পর গত কয়েক বছরে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের ‘টার্গেট কিলিং’ বাড়ছে। ফলে আরও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন উপত্যকার সংখ্যালঘুরা। কিন্তু এবার তাঁরা যেভাবে পথে নেমে বিক্ষোভ দেখানো শুরু করলেন তাতে মোদি (Narendra Modi) সরকারের ভাবমূর্তি ধাক্কা খেতে বাধ্য। এর আগে উপত্যকায় রাহুল ভাট (Rahul Bhat) নামের এক শিক্ষকের মৃত্যুর পরও একই ধরনের বিক্ষোভ হয়।

Advertisement
Next