গুজরাটি আর রাজস্থানিরা না থাকলে বাণিজ্যনগরী হত না মুম্বই, মহারাষ্ট্রের রাজ্যপালের মন্তব্যে বিতর্ক

03:17 PM Jul 30, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মারাঠীদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য। বিপাকে মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারী (Bhagat Singh Koshyari)। রাজ্যপালকে লিখিতভাবে ক্ষমা চাইতে হবে, একযোগে দাবি উদ্ধবপন্থী শিব সেনা এবং কংগ্রেসের।

Advertisement

কী বলেছিলেন মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল? শনিবার এক অনুষ্ঠানে ভগৎ কোশিয়ারি বলেন, “মহারাষ্ট্র থেকে যদি গুজরাটি এবং রাজস্থানিদের বের করে দেওয়া হয়, তাহলে মহারাষ্ট্রে (Maharastra) কোনও টাকা অবশিষ্ট থাকবে না। মুম্বইও ভারতের বাণিজ্যনগরী থাকবে না।” পশ্চিম মুম্বইয়ের আন্ধেরিতে একটি এলাকার নামকরণ অনুষ্ঠানে গিয়ে এই মন্তব্য করেন তিনি। রাজভবনের তরফে জারি করা প্রেস বিবৃতিতেও গুজরাটি এবং রাজস্থানিদের ভুয়সী প্রশংসা করা হয়। রাজ্যপাল বলেন, রাজস্থানি-মাড়ওয়ারি এবং গুজরাটিরা দেশের যে প্রান্তেই যাক, সেখানে শুধু ব্যবসাই করে না, সেই সঙ্গে সমাজসেবাও করে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: মোদি-যোগীকে সমর্থনের ‘শাস্তি’, উত্তরপ্রদেশে স্ত্রীকে তিন তালাক স্বামীর]

রাজ্যপালের এই মন্তব্যে ইতিমধ্যেই তীব্র বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। একযোগে এ নিয়ে সরব হয়েছেন উদ্ধবপন্থী শিব সেনা এবং কংগ্রেস (Congress)। উদ্ধবপন্থী শিব সেনার বক্তব্য, রাজ্যপাল মারাঠীদের অপমান করেছেন। মারাঠা অস্মিতায় আঘাত করেছেন। উদ্ধবপন্থী শিব সেনা (Shiv Sena) নেতা সঞ্জয় রাউত টুইট করে বলেন, বিজেপির পোষা একজন মুখ্যমন্ত্রী মসনদে বসতেই ফের মারাঠীদের অপমান করা শুরু হয়ে গেল। কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ (Jairam Ramesh) এবং শচীন সাওয়ন্তও একই টুইট করেছেন। তাঁদের বক্তব্য, রাজ্যপালের এই ধরনের কথা বলা উচিত হয়নি। তাঁকে ক্ষমা চাইতে হবে।

[আরও পড়ুন: তরুণীকে বন্দি করে ধর্ষণ! গুরুতর অভিযোগে এবার তদন্তের মুখে গুজরাটের মন্ত্রী]

বস্তুত, বালাসাহেব ঠাকরের (Balasaheb Thackeray) আমলে শিব সেনার উত্থানের একটা বড় কারণ ছিল মারাঠী অস্মিতা। দলের ভগ্নদশায় তাঁর ছেলে উদ্ধব ঠাকরেও হাতেগরম মারাঠী অস্মিতা ইস্যুকে হাতিয়ার করার সুযোগ পেয়ে গেলেন। তিনি বলছেন, রাজ্যপাল সব সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছেন। মারাঠীদের এই অপমান মুখ বুঝে সহ্য করা হবে না। 

Advertisement
Next